আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

ইরানি হ্যাকারদের লক্ষ্য মার্কিন নির্বাচন: মাইক্রোসফট

আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে লক্ষবস্তু হিসেবে ঠিক করেছে ইরানের একটি হ্যাকার দল যাদের সঙ্গে ইরান সরকারও সংশ্লিষ্ট বলে লক্ষণ রয়েছে– দাবি মাইক্রোসফটের।
বিবিসি’র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দলটি ইতোমধ্যেই প্রায় আড়াইশ’ ইমেইল অ্যাকাউন্টে আক্রমণ চালিয়েছে। এর মধ্যে কিছু অ্যাকাউন্টের মালিক এমন সব ব্যক্তি যারা বিশেষ একটি নির্বাচনী প্রচারণার সঙ্গে যুক্ত। বিবিসির প্রতিবেদনে কোনো নাম উল্লেখ করা না হলেও রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মূলত ডনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণাই হ্যাকার দলটির লক্ষ্য।
ইরান এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি। অপরদিকে ডনাল্ড ট্রাম্পের প্রচারণা দলের একজন বলেছেন, তাদেরকে টার্গেট করা হয়েছে এমন কোনো ইঙ্গিত তারা পাননি।
এ বিষয়ে কী বলেছে মাইক্রোসফট?
মাইক্রসফটের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, “আমরা দেখেছি একটি দল নির্দিষ্ট কিছু সাইবার কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে। দলটিকে আমরা বলছি ‘ফসফরাস’। আমরা ধরণা করছি, এর উৎস ইরানে এবং তা সরাসরি ইরান সরকারের সঙ্গে জড়িত”।
মাাক্রোসফটের দাবি, অগাস্ট থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যে ৩০ দিনে ফসফরাস দুই হাজার সাতশত বার বিভিন্ন ইমেইল অ্যাকাউন্টের পরিচয় জানার চেষ্টা চালিয়েছে। এরপর দলটি ২৪১টি ইমেইল অ্যাকাউন্টের উপর আক্রমণ চালায়।
“এসব অ্যাকাউন্টধারীর মধ্যে রয়েছে নির্বাচনী প্রচারণা সংশ্লিষ্ট লোকজন, সাবেক ও কর্মরত মার্কিন সরকারী কর্মকর্তা, আন্তর্জাতিক রাজনীতি বিষয়ে কাজ করেন এমন সাংবাদিক এবং প্রভাবশালী প্রবাসী ইরানী ব্যক্তি”- বলা হয়েছে মাইক্রোসফটের বিবৃতিতে।
মাইক্রসফটের মতে, মাত্র চারটি অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে হ্যাকাররা সফল হতে পেরেছে তবে এর কোনোটির মালিকই নির্বাচনের সঙ্গে এখন বা অতীতে সংশ্লিষ্ট ছিলেন না।
হ্যাকাররা মূলত অ্যাকাউন্টগুলোর নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার চেষ্টা করেছে। তবে, মাইক্রসফট এ-ও বলছে যে, এটিকে “খুব উন্নতমানের আক্রমণ বলা যাবে না”। ইতোমধ্যেই মাইক্রোসফট আক্রান্ত অ্যাকাউন্ট মালিকদের এ বিষয়ে জানিয়েছে এবং অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা বিষয়ে সহযোগিতার আশ্বাসও দিয়েছে।
তবে, মাইক্রসফট বলছে ফসফরাস, যার আরেক নাম ‘এপিটি ৩৫’, এ দলটির সদস্যরা “অত্যন্ত নিবেদিত এবং তারা তথ্য এবং উপাত্ত সংগ্রহ করার জন্য শ্রম ও যথেষ্ট সময় দেওয়ার বিষয়ে আগ্রহী”।
মাইক্রসফট অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারীদের পরামর্শ দিয়েছে দুই ধাপে যাচাইকরণ পদ্ধতি চালু করার জন্য। সেইসঙ্গে নিয়মিত লগ ইন হিস্টোরি চেক করার জন্যও পরামর্শ দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...