আজ ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

পরপর দুইদিনে চট্টগ্রামে ৬ মৃত্যু; করোনা শনাক্ত ১১ হাজার ছাড়ালো

চট্রগ্রাম প্রতিনিধি: পরপর দুইদিন করোনায় ছয় জনের মৃত্যু হয়েছে বন্দরনগরী চট্টগ্রামে। গত ২৪ ঘন্টায় নগরের ৫ এবং উপজেলার একজন সহ করোনায় মোট প্রাণ হারিয়েছে ২১০ জন। জেলায় একদিনে আরও ২৫৯ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এনিয়ে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১১ হাজার ৩১ জনে।

 

বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) সকালে জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বী  এসব তথ্য জানান।

 

 

তিনি জানান, বুধবার মোট ছয়টি ল্যাবে ১ হাজার ২৬৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৫৯ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। নতুন শনাক্তদের মধ্যে ১৭৬ জন নগরের ও ৮৩ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। একদিনে নতুন করে সুস্থ হয়েছে ১৮ জন। এবং গতকাল করোনায় নগরে ৫ জন ও উপজেলায় একজনের মৃত্যু হয়েছে।

 

 

বুধবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৭০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩৯ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। এর মধ্যে নগরের ১১ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ২৮ জন আছেন।

 

 

বুধবার বিআইটিআইডিতে ২৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৩৮ জনের দেহে করোনার জীবাণু পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ১৪ জন নগরের ও ২৪ জন উপজেলার বাসিন্দা।

 

 

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ২৩৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৪২ জনের করোনা মিলেছে। এর মধ্যে ৩৬ জন নগরের ও ৬ জন বিভিন্ন উপজেলার।

 

 

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ইউনিভার্সিটির ল্যাবে ২০৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে চট্টগ্রামের ২৮ জনের করোনা মিলেছে। এর মধ্যে ২১ জন নগরের ও ৭ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

 

 

বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতালের ল্যাবে ১৩২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৩৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে নগরের ৩১ জন ও উপজেলার ৭ জন আছেন।

 

 

শেভরণ ল্যাবে ২৪৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৭৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ৬৩ জন নগরের ও ১১ জন উপজেলার বাসিন্দা। এছাড়া কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে বুধবারও চট্টগ্রামের কারও নমুনা পরীক্ষা হয়নি।

 

উপজেলা পর্যায়ে নতুন শনাক্ত ৮৩ জনের মধ্যে লোহাগাড়ার ৪, সাতকানিয়ার ৬, বাঁশখালীর ৩, চন্দনাইশের ৮, পটিয়ার ৫, বোয়ালখালীর ২, রাঙ্গুনিয়ার ৪, রাউজানের ১৭, ফটিকছড়ির ৪, হাটহাজারীর ২০, মিরসরাইয়ের ৬ ও সীতাকুণ্ডের ৪ জন আছেন।

 

 

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্যমতে, চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্ত ১১ হাজার ৩১ জন। এর মধ্যে ৭ হাজার ৬৭৮ জন নগরের ও ৩ হাজার ৩৫৩ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। করোনায় মারা গেছেন ২১০ জন। এর মধ্যে ১৫০ জন নগরের ও ৬০ জন উপজেলার বাসিন্দা। এবং এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন মোট ১ হাজার ৩২৪ জন করোনা রোগী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...