আজ ১১ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জুলাই, ২০২১ ইং

খাস জমি দখল ও মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন

দিনাজপুর প্রতিনিধি : খাস জমি দখল এবং প্রতিবাদকারীদের বিরুদ্ধে ভুমিদস্যুদের মিথ্যা মামলা দায়েরের প্রতিবাদে দিনাজপুরে স্থানীয়রা সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন করেছে।

দিনাজপুর পৌরসভার বড়পুল কসবা এলাকায় পুলিশ সুপারের বাসভবনের সন্মুখে ভুমিদস্যু নুর আলম সিদ্দিক,মৌলভী শওকত আলী ভুয়া কাগজ দেখিয়ে সরকারী সম্পত্তি জোরপূর্বক দখল করেছে। খাস জমিদখলের প্রতিবাদ করায় স্থানীয়দের বিরুদ্ধে মিথ্যা চাঁদাবাজির মামলা করেছে কুখ্যাত ভুমিদ:স্যু শওকত আলী। খাসজমি দখল ও মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে ২৮ ফেব্রুয়ারী রোববার সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে স্থানীয়রা। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বীরমুক্তিযোদ্ধার সন্তান মো: ইমরান ইবনে আজিজ।

লিখিত বক্তব্য পাঠ করে তিনি বলেন, ভুমিদস্যু প্রতারক পুলিশের নিয়োগ বানিজ্যের মধ্যস্থতাকারী জামায়াত শিবিরের আন্দোলনের অর্থ জোগানদাতা মৌলভী শওকত আলী জমিটি গ্রাসের জন্য ঢাল হিসেবে এখন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মো: আবুল কালাম আজাদকে জড়িয়ে নিয়েছে।

দখলকৃত জমিতে ক্রয়সুত্রে মালিক হিসেবে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মো: আবুল কালাম আজাদ এর নামে একটি সাইনবোর্ডও লাগিয়েছে। তার ইচ্ছেমত জমিটি দখলের ক্ষেত্রে জনপ্রশাসনের সর্ম্পূণ সহযোগীতা কাজে লাগাতে পারে এমন উদ্দেশেই সাইনবোর্ডটি লাগানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে এলাকাবাসীর চাপের মুখে ড.মো: আবুল কালাম আজাদ এবং ভুমিদস্যু শওকত আলী জমির বৈধ মালিক হিসেবে কোনো প্রকার কাগজপত্র স্থানীয় এলাকাবাসীকে দেখাতে পারেনি।

সংবাদ সম্মেলনে জনস্বার্থে পানি নিস্কাশনের খালটি (দোলা জমি) রক্ষায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নিকট স্থানীয়রা সহযোগীতা প্রত্যাশা করেন এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার সহ ভুমিদস্যুদের আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির দাবী জানানো হয়েছে। পরে তারা দুপুরে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক কার্য্যালয়ের সন্মুখ সড়কে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্মারকলিপি প্রদান করেন। জোর দাবি জানায়।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, আশরাফুজ্জামান জুয়েল, মেজবাউল আলম, আরিফুর রেজা সুমন,জুলফিকার হোসেন পলাশ ও শাহরিয়ার শান্ত প্রমুখ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...