আজ ৬ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২১ ইং

 ঘুমন্ত ছাত্রীকে হত্যার চেষ্টা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে বড় বোনকে হত্যার তিন বছর পর ছোট বোনকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। ঘুমন্ত অবস্হায় স্কুল ছাত্রীর শয়ন কক্ষে দূর্বৃত্তরা হানা দিয়ে তাকে দায়ের কোপে রক্তাক্ত জখম করেছে ।
অচেতন অবস্থায় উদ্ধারকৃত ছাত্রীকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে৷

আহত ছাত্রী মারজিয়া (১৮) বানিয়াচং উপজেলার ১২ নম্বর সুজাতপুর ইউপি‘র ইকরাম গ্রামের মৃত মোস্তফা মিয়ার কন্যা। সে স্থানীয় বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রী। আহত ছাত্রীর শয়ন কক্ষ থেকে পাশ্ববর্তী গ্রামের এক যুবকের মানিব্যাগ,মোবাইল ফোন ও আইডি কার্ড উদ্ধার করেছে বানিয়াচং থানা পুলিশ। সন্দেহজনক ওই যুবককে খুজছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে আহত ছাত্রীর শয়ন কক্ষে।

থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের ন্যায় ওই ছাত্রী বাড়ীর পাকা বসত ঘরে তার নিজস্ব শয়ন কক্ষে একা একা রাতে শুয়েছিলেন।
গতকাল ১০ মার্চ বুধবার ভোরে এক প্রতিবেশী ওই ছাত্রীর ঘরের দরজা খোলা দেখে কাছে গিয়ে রক্তাক্ত ও অচেতন অবস্থায় দেখতে পেয়ে ছাত্রীর পরিবার ও লোকজনকে জড়ো করেন।
পরবর্তীতে এলাকাবাসী উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে ওই হাসপাতালের চিকিৎসকের পরামর্শে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে প্রেরন করেন।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানা ইনচার্য মোঃ এমরান হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আহত ছাত্রীকে চিকেৎসা দেওয়া হচ্ছে। থানা পুলিশ অতিশীঘ্রই এ ঘটনার রহস্য উদঘাটন করতে পারবে বলে আশা করছি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...