আজ ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুন, ২০২৪ ইং

শিশু বাইজিদ হত্যার রহস্য উদঘাটন

বিশেষ প্রতিনিধি : গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার চাঞ্চল্যকর শিশু আব্দুল্যাহ ওরফে বাইজিদ কে (৪) হত্যার মূল সহস্য উদঘাটন করছে পুলিশ। এ ঘটনায় ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়ছে। এর মধ্যে দুই জনকে রিমান্ডে নিলে তারা এই হত্যার স্বীকারোক্তি দেয়।

এ উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার দুপুরে গাইবান্ধার পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মলনের মাধ্যমে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার কামাল হোসেন। গ্রেফতার কৃতরা হলেন- খোরশদ আলম (২১) আশাদুজ্জামান রনি (১৯), ছকিনা বেগম (৬০), ববিতা বেগম (৪৫), মনিরা বেগম (২২), রোস্তম আলী মন্ডল (১৪) ও সোহাগ মন্ডল (১৬)।
সংবাদ সম্মলনে বলা হয়, উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের তালুক ঘোড়াবাদা বালুখালা গ্রামের তাহারুল ইসলাম ও রেহানা বেগম দম্পতির ছেলে আব্দুল্যাহ ওরফে বাইজিদ গত ৮ মে বিকেলে খেলার সময় নিখোজ হয়। এরপর সন্ধ্যা ঘনিয়ে এলেও বাড়িতে না ফেরায়  শিশুর মা রেহনা বেগম পলাশবাড়ী থানায় জিডি করেন।

পরবর্তীতে ১০ মে রাহনা বেগম বাদী হয় একটি মামলা দায়ের করেন। এদিনে একই গ্রামের সাইফুল ইসলাম শরকুলের ছেলে সাকিব হাসান রোমান (১৯) ও সাহরাফ হোসেনের ছেলে শরিফুল ইসলামকে (২০) ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার করা হয়। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বাইজিদকে হত্যা করা হয়ছে মর্মে তথ্য প্রদান করে। এরপর গ্রেফতার কৃতদের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পুলিশ আবেদন করে।
এদিকে গত ১৩ মে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে আসামি রোমানের বাড়ির পূর্ব পাশে ধানক্ষেত থেকে আব্দুল্যাহ বাইজিদের গলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ১৪ মে বিজ্ঞ আদালত রোমান ও শরিফুলের রিমান্ড মঞ্জুর করে। পুলিশ রিমান্ডে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদে আসামি সাকিব হাসান রোমান এই হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার কর। পরে এ ঘটনায় খোরশদ আলম, আশাদুজ্জামান রনি, ছকিনা বেগম, ববিতা বেগম, মনিরা বেগম, রোস্তম আলী মন্ডল ও সোহাগ মন্ডল সহ মাট ৯ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...