আজ ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ ইং

সম্পত্তির জন্য মাকে পেটালেন মেয়ে, মেয়ে ও মেয়ে জামাইয়ের বিরুদ্ধে থানায় মামলা

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের আদিতমারীতে সম্পত্তি ভাগাভাগি নিয়ে সৎ মায়ের সাথে দ্বন্দ্বের জেরে হামলা ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে চার মেয়ে ও তিন জামাতার বিরুদ্ধে। হামলায় গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন স্কুল শিক্ষিকা মা আজিজা বেগম। এ ঘটনায় তার সতীন, চার সৎ মেয়ে ও তিন জামাতার বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন মা আজিজা বেগম।

রবিবার(১০ ডিসেম্বর) বিকেলে আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোজাম্মেল হক থানায় লিখিত অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, জেলার আদিতমারী উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের দীঘলটারীর বাসিন্দা মৃত বেলাল হোসেনের মৃত্যুর পর তার দুই স্ত্রী ও সন্তানদের মধ্যে সম্পত্তির ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়। তারই জেরে গত শুক্রবার(৭ ডিসেম্বর) দুপুরে চার সৎ মেয়ে, তিন জামাতা এবং সতীন রোকেয়া বেগম(৫৫) আরেক মা স্কুল শিক্ষিকার বাড়িতে অবস্থান নেয়। সেখানেই কথা বলার এক পর্যায়ে সম্পত্তির ভাগ চায় তারা। স্কুল শিক্ষিকা মা আজিজা বেগম স্থানীয়ভাবে বসে সম্পত্তি ভাগাভাগির বিষয়টি সমাধান করার প্রস্তাব দিলে তারা প্রত্যাক্ষাণ করে তাকে গালিগালাজ করে মেয়েরা। এরই এক পর্যায়ে জামাতা সিফাত প্রামাণিক(২৩) শহিদুল ইসলাম সায়েদ(৩০),রেজাউল করিম বাদল(৩৩) সতীন রোকেয়া বেগম(৫৫), সৎ মেয়ে রিয়া(২২), রিতু (২৬), মৌরিন মিতু(৩১), শারমিনা সেতু(২৯) শ্লীলতাহানি ও হামলা চালিয়ে আহত করে স্কুল শিক্ষিকা আজিজা বেগমকে। এই সুযোগে মেয়ে এবং জামাতারা ঘরে থাকা নগদ টাকাসহ স্বর্ণালংকার লুটপাট করে নিয়ে যায় বলেও অভিযোগে উল্লেখ করেন মা আজিজা বেগম। ঘটনার পর থেকে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন স্কুল শিক্ষিকা আজিজা বেগম রেবা। পরে ওইদিন রাতেই আদিতমারী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

এ বিষয়ে আজিজা বেগম রেবার সৎ মেয়ের স্বামী মোঃ সিফাত প্রামাণিকের সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমার বিরুদ্ধে করা অভিযোগ সম্পুর্ন মিথ্যা, ওইদিন আমি ঘটনাস্থলেই ছিলাম না। আমাকে ফাঁসাতে পায়তারা করছে একটি পক্ষ।

আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোজাম্মেল হক বলেন, দূর্গাপুরে বসতভিটা দখলকে কেন্দ্র করে সংঘটিত ঘটনায় উভয় পক্ষ পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দিয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...