আজ ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে মে, ২০২৪ ইং

হিলি সীমান্তে জেঁকে বসেছে শীত, বিপাকে খেটে খাওয়া মানুষ

উত্তরের সীমান্তঘেষা জেলা দিনাজপুরের হিলি সীমান্তে জেকে বসেছে শীত। হঠাৎ জেঁকে বসা শীতে চরম বিপাকে পড়েছে শিশু ও বয়স্করা । ঘন কুয়াশা আর হিমেল হাওয়ায় শীতে নাকাল হয়ে পড়েছে দিন-মুজুর ও খেটে খাওয়া মানুষ।

কুয়াশার চাদর ভেদ করে গত তিন দিন কোন প্রকার সূর্যের দেখা মিলেনি। ফলে কমছেনা শীতের প্রকোপ। শীতের কারণে শিশু ও বড়দের বিভিন্ন শীত জনিত রোগ বৃদ্ধি পাচ্ছে। হাসপাতালেও শীত জনিত রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে।

ঘাষ, ফুল, লতা-পাতা, গুলোতে সকালে শিশিরে ভেজা থাকছে। শুরু হয়েছে হিমেল হাওয়া আর বিকেল থেকে জেঁকে বসেছে কন কনে শীত। ঘন কুয়াশা আর কনকনে শীতে সবচেয়ে বেশী দূর্ভোগে পড়েছে খেটে খাওয়া দিনমজুরের পাশাপাশি শিশু ও বয়স্করা।

হঠাৎ শীতে শ্রমজীবি মানুষের চরম দূর্দশা বেড়েছে। কনকনে ঠান্ডার কারণে ঘরের বাইরে বের হতে পারছেন না শিশু ও বয়োস্ক মানুষ। সারদিন শীতের তিব্রতার কারনে হাট-বাজারে লোকের সমাগম অনেকটায় কম দেখা গেছে।

হতদরিদ্র-ছিন্নমূল মানুষ শীতবস্ত্রের অভাবে অনেকেই খড়-কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করেও মানুষের সাথে বসবাসরত গৃহপালিত পশুদের অবস্থা ভয়াবহ। অতিরিক্ত ঘন কুয়াশার কারণে দিনের বেলাতেও রাস্তায় যানবাহন চালাতে হচ্ছে হেড লাইট জ্বালিয়ে।

এদিকে ধুম পড়েছে লেপ-তোষক তৈরীর। এবার দাম বেড়েছে লেপ-তোষকের। নতুন শীত বস্ত্র ক্রয় ক্ষমতার বাইরে হতদরিদ্র মানুষের, তাই ফুটপাতে দোকান গুলোতে পুরাতন কাপড় কিনতে ভিড় জমাচ্ছেন তারা ।

এদিকে হাকিমপুর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ্য থেকে হতদরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষের মাঝে রাতের আধারে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে।

শীতের প্রকোপ থেকে রেহাই পেতে হতদরিদ্র-ছিন্নমূল মানুষেরা সমাজের বিত্তবানদের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...