আজ ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ইং

রাঙ্গামাটি শহরে সেনাবাহিনী, ম্যাজিষ্ট্রেট ও পুলিশের ৪ টি মোবাইল টিম

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি:   করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় সরকারের ছুটি ঘোষণা অনুযায়ী আজ সকাল থেকে রাঙ্গামাটির রাস্তা গুলোতে জেলা প্রশাসনের ম্যাজিষ্ট্রেট, পুলিশ ও সেনাবাহিনীর ৪ টি টিম প্রতিনিয়ত কাজ করছে। সকাল থেকে রিজার্ভ বাজার, তবলছড়ি, বনরূপা, ভেদভেদী সহ বিভিন্ন এলাকায় ও বাজারে টহল দিতে দেখা গেছে। সেনাবাহিনী ও ম্যাজিষ্ট্রেটের টিম গুলো রাঙ্গামাটির হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা লোকদের বাড়ী বাড়ী গিয়ে তাদেরকে সচেতন করে আসছেন এবং রাঙ্গামাটির জালিয়া পাড়ায় ভারত থেকে আসা ৩ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ প্রদান করেন। স্থানীয় কাউন্সিলার তাদের খাবার দাবারের ব্যবস্থা করবে বলে নির্দেশনা প্রদান করেন জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। এদিকে রাঙ্গামাটি জেলা শহরকে লক ডাউন না করলেও রাঙ্গামাটি শহরের একমাত্র গণ পরিবহন সিএনজি অটোরিক্সা বন্ধ থাকায় রাঙ্গামাটি কার্যত লকডাউন হয়ে গেছে। প্রয়োজনের দুই একজন মোটর সাইকেল নিয়ে ঘরের বাইরে বের হচ্ছে। তবে রাঙ্গামাটি শহরের রিজার্ভ বাজার সহ বেশ কিছু এলাকায় শ্রমজীবি মানুষেরা কাজে যোগ দিতে দেখা গেছে। রাঙ্গামাটি জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের ডাঃ মোস্তফা কামাল জানান, আজ সকাল ৮ টা পর্যন্ত রাঙ্গামাটিতে নতুন করে প্রবাসী ও বিদেশ ফেরত আরও ২ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রেখেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। এ পর্যন্ত জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার সংখ্যা বেড়ে ১৪৮ জন-এ দাঁড়ালেও ৩২ জনের হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ হয়েছে। এই নিয়ে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ১১৬ জন। অন্যদিকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে রাঙ্গামাটির সীমান্তবর্তী এলাকায় নজরদারী বৃদ্ধি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ,কে,এম মামুনুর রশিদ। জেলা প্রশাসক বলেন, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার কয়েকটি উপজেলার সাথে ভারত ও মিয়ানমারের বর্ডার রয়েছে। এর মধ্যে রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি, বরকল, জুরাছড়ি এ তিনটি উপজেলা ভারত সীমান্তবর্তী এলাকা রয়েছে এবং বিলাইছড়ি উপজেলা দিয়ে মিয়ানামারের কিছু অংশ রয়েছে। এই এলাকা গুলোতে এখনো অতিরিক্ত বিজিবি মোতায়েন রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...