আজ ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ইং

চুয়াডাঙ্গায় আটকের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলায় আটকের পর বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক যুবক নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম জসিম উদ্দিন (৩৫)।

বিজিবির দাবি, নিহত জসিম মাদক ব্যবসায়ী। তিনি উপজেলার সীমান্ত ইউনিয়নের নতুনপাড়া গ্রামের আবদুল করিম মণ্ডলের ছেলে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে বেশ কিছু ধারালো দেশীয় অস্ত্র ও ৩২৩ বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার রাত ১টার দিকে নতুনপাড়া সীমান্তে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

বিজিবি সূত্র জানায়, জীবননগর উপজেলার নতুনপাড়া বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে জসিম উদ্দিনকে ২৩ বোতল ফেনসিডিলসহ একটি আমবাগানের ভেতর থেকে আটক করে। জসিম উদ্দিনকে জিজ্ঞাসাবাদের পর তার দেয়া তথ্যমতে, বিজিবি সদস্যরা তাকে নিয়ে রাত ১টার দিকে নতুনপাড়া ভড়ভড়িয়া মাঠে আমবাগানের অভিযানে যায়। এ সময় ভেতর থেকে দুটি বস্তায় রাখা ৩০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

এ সময় জসিম উদ্দিনের সহযোগীরা তাকে ছিনিয়ে নিতে বিজিবিকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি করে। এতে বিজিবির দুই সদস্য আহত হন। বিজিবি সদস্যরাও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে। এ সময় মাদক ব্যবসায়ী জসিম গুলিবিদ্ধ হয়ে মারাত্মকভাবে আহত হন। তাকে উদ্ধার করে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

খালিশপুর ৫৮ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল কামরুল আহসান বলেন, এ ঘটনায় জীবননগর থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। জীবননগর থানার ওসি সাইফুল ইসলাম বলেন, বিজিবি সদস্যরা ঘটনার আগেই মাদক ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিনকে ফেনসিডিলের একটি চালানসহ গ্রেফতার করেন। তাকে নিয়ে ওই দিন রাতেই আবার মাদক উদ্ধারে গেলে বিজিবি ও মাদক ব্যবসায়ীদের পাল্টাপাল্টি গুলিবর্ষণে জসিম উদ্দিন আহত হন। তাকে হাসপাতালে নেয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক জসিমকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত মাদক ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মাদক মামলা আছে বলে জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...