আজ ৩রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

ছিনতাইকারীকে গণপিটুনি থেকে বাঁচাতে গিয়ে ৮ পুলিশ সদস্য আহত : গ্রেফতার ৩ || গ্রেফতার আতঙ্কে পুরুষশূন্য গ্রাম

গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় ব্যাটারিচালিত রিকশা-ভ্যান ছিনতাইকারীকে জনগণের রোষানল ও গণপিটুনি থেকে রক্ষা করতে গিয়ে গ্রামবাসীর হামলা ও ইটপাটকেলের আঘাতে তিন কর্মকর্তাসহ পুলিশের আট সদস্য আহত হয়েছেন। পরে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ তিন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে। গত  শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার ধাপেরহাট ইউনিয়নের সরদারপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তারপর থেকেই ওই গ্রামটি গ্রেফতার আতঙ্কে পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে।

আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন, সাদুল্লাপুর থানার ওসি (তদন্ত) মোস্তাফিজুর রহমান, উপপরিদর্শক (এসআই) মিলন মিয়া, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আশরাফুল ইসলাম, কনস্টেবল অনু রায়, আহসান হাবীব-১, আহসান হাবীব-২, দীপক কুমার ও রেজাউল করিম। তাদের সবাইকে সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, সাদুল্লাপুর উপজেলার ধাপেরহাট ইউনিয়নের সরদারপাড়া গ্রামের রেজাউল মিয়ার ছেলে আরিফুল ইসলাম (২২), একই গ্রামের কোরবান আলীর ছেলে শরিফুল ইসলাম (৩২) ও সাহেব আলী সরদারের ছেলে রাহেনুল ইসলাম সরদার (২১)।

এছাড়া পুলিশ রিকশা-ভ্যান ছিনতাইকারী সন্দেহ গ্রামবাসীর কাছে আটক একই ইউনিয়নের মোংলাপাড়া গ্রামের একরামুল হোসেনের ছেলে মেহেদি মিয়া (২০) ও তাদের সহযোগী একই ইউনিয়নের সরদারপাড়া গ্রামের মো. মতি আকন্দের ছেলে হিরু মিয়াকেও (৩০) গ্রেফতার করেছে। তবে অপর সন্দেহভাজন ছিনতাইকারী একই ইউনিয়নের ছোটো ছত্রগাছা গ্রামের রানু মিয়ার ছেলে ফরিদুল (২২) পালিয়ে গেছে।

গ্রামবাসী জানান, মেহেদি ও ফরিদুল শুক্রবার রাতে পার্শ্ববর্তী রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার চতরাহাট থেকে ওয়াহেদ মণ্ডল নামে এক ব্যক্তির ব্যাটারিচালিত রিকশাভ্যান ভাড়া করে সরদারপাড়া নিয়ে আসে। পরে সেখানে তারা রিকশাভ্যানটি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে হট্টগোল শুনে এলাকাবাসী মেহেদি ও ফরিদুলকে আটক করে। এ সময় সরদারপাড়া দাখিল মাদ্রাসার চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী হিরু মিয়া ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে কৌশলে ফরিদুলকে নিজের জিম্মায় নিয়ে সটকে পড়েন। এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এবং মেহেদিকে এলোপাথাড়ি মারপিট শুরু করে।

সাদুল্যাপুর থানার ওসি মো. মাসুদ রানা বলেন, এ ঘটনায় ধাপেরহাট পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের পরিদর্শক (ইনচার্জ) রজ্জব আলী বাদী হয়ে শনিবার ৪৫ জন নামীয় ও অজ্ঞাত ৩৫০ থেকে ৪০০ জনের বিরুদ্ধে সাদুল্লাপুর থানায় একটি মামলা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...