আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২০ ইং

মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় পলাশবাড়ীতে ইউপি সদস্যের উপর ও তার পরিবারের উপর হামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক: মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় পলাশবাড়ীতে ইউপি সদস্যের উপর ও তার পরিবারের উপর হামলা হয়েেেে।

গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী সাদুল্যাপুর দুই উপজেলার সীমানায় ঢোলভাঙ্গা নামকস্থান জেলার ভিতর বহুল পরিচিত স্থান।  এখানে ভালো মন্দ উভয় প্রকার মানুষের বসবাস।

তবে অন্যান্য স্থানের চাইতে এখানে অপরাধির সংখ্যা শুরু হতেই বেশী। এ এলাকা নানা সময়ে নানা মাদককারবারীর স্বর্গ রাজ্য হয়। মাদকের কারবার চলে এখানে নানা কৌশলে তাছাড়া এলাকায় আদি ডাকাত সদস্যদেরও বসবাস।

যদিও বর্তমান সময়ে পুলিশ সহ আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের কঠোর অবস্থানে রয়েছেন। এ কারণে অত্র এলাকা ডাকাতরা ভালো হয়ে গেলেও এর একটি অংশ গোপনে মাদকের সাথে এখনও সম্পৃক্ত রয়েছে। তারা নানা কৌশলে মাদকের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। গাইবান্ধা শহর সহ আশপাশের উপজেলা থেকে এখানে মাদক নিতে আসে অনেকে মাদক সেবী। চলে অনেক রাত পর্যন্ত মোটরসাইকেল সিএনজির আনাগোনা। এখান হতে দেশে বিভিন্ন স্থানে যাওয়ার কল্পে মাদকের চালান আটকের একাধিক ঘটনা রয়েছে। তেমনি রয়েছে মাদক ব্যবসা হতে আজীবনের জন্য সরে দাড়ানো অঙ্গিকার করা শপথকারী।গোটা জেলা যখন জেলা পুলিশের তৎপরতায় মাদক ব্যবসা গুটিয়ে এসেছে আর এই কঠোরতার মধ্যেও ঢোলভাঙ্গায় নানা কৌশলে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে একটি চক্র।

গতকাল সন্ধ্যায় ঢোলভাঙ্গা বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় বহিরাগত এক মাদকসেবীর পরিচয় জানতে চাইলে স্থানীয় মাদককারবারীরা ক্ষিপ্ত হয়ে পলাশবাড়ী উপজেলার বেতকাপা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম কে মারধর করে। পরে  রাতে এঘটনায় ৫ জনকে আসামী করে পলাশবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম। এ অভিযোগ দায়ের পর অভিযুক্তরা আবারো আজ  রফিকুল ইসলাম কে মারধর করে  রক্তাক্ত করে ও তার পরিবারের উপর হামলা করে স্ত্রী সন্তানদের মারধর করে। এরপর আহতদের উদ্ধার করে পলাশবাড়ী হাসপাতালে ভর্তি করে স্থানীয়রা।

এবিষয়ে পলাশবাড়ী থানা অফিসার ইনচার্জ মাসুদুর রহমানের সরকারি মোবাইল নাম্বারে কল দিলে তিনি রিসিভ না করায় তার কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...