আজ ২৭শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ই জুন, ২০২১ ইং

গৃহবধু লিপি হত্যার ২০দিন পেরিয়ে গেলোও আসামীদের গ্রেফতার করছে না পুলিশ

হরিপুর (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে লিপি আক্তার (২৫)
নামে এক গৃহবধু হত্যার ২০দিন পেরিয়ে গেলোও আসামীদের গ্রেফতার করতে পারেনি থানা পুলিশ ।

লিপি আক্তার হত্যা মামলার অভিযুক্ত আসামীরা ২০দিনেও গ্রেফতার না হওয়ায়
চরম হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে গৃহবধুর পরিবার। এদিকে গ্রেফতার এড়িয়ে আসামীরা মামলার বাদী ও তার পরিবারকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছেন বলে গৃহবধুর বাবা হাফিজ উদ্দীন অভিযোগ করেন।

তবে পুলিশ বলছেন আসামীরা পলাতক থাকায় তাদের গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তবে গ্রেফতারের চেষ্টা আব্যাহত রয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার ৪নং ডাঙ্গীপাড়া ইউনিয়নের ডাঙ্গীপাড়া গ্রামের ইশাহাক আলীর ছেলে রুয়েলের সঙ্গে একই উপজেলার পার্শ্ববর্তি ৫নং হরিপুর সদর ইউনিয়নের তোররা (সাতহাজরা) গ্রামের হাফিজ উদ্দীনের কন্যা লিপি আক্তারের ৮/৯ বছর পূর্বে বিবাহ হয়। বিয়ের সময় গৃহবধুর পরিবার মেয়ের সুখের জন্য বিভিন্ন আসবাবপত্রসহ নগদ ২লক্ষ ৫০ হাজার টাকা জামাই রুয়েলকে দেওয়া হয়। বিয়ের পর মেয়ে ও জামাইয়ের সংসার জীবন বেশ সুখেই ছিল । বিয়ের কিছুদিন যেতে না যেতেই জামাই রুয়েল ও তার পরিবারের লোকজন গৃহবধু লিপি আক্তারের নিকট থেকে আরো মোটা অংকের টাকা যৌতুক দাবি করেন লিপি আক্তার যৌতুক দিতে অস্বীকৃতি জানালে তাকে কয়েকবার মারপিট ও নির্যাতন করে। মারপিট ও নির্যাতন করার ফলে কয়েকবার স্থানীয়ভাবে শালিস-বৈঠকও হয়। শালিস-বৈঠক হওয়ার পরও লিপি আক্তারকে যৌতুক আনতে চাপ প্রয়োগ করা হলে সে যৌতুক আনতে অপারগতা প্রকাশ করায় আবারো তাকে শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন করে। গত ২৪ মে আবারও যৌতুকের জন্য স্বামী রয়েলসহ তাদের পরিবারের লোকজন লিপিকে শারীরিক নির্যাতন ও মারপিট করলে সে ঘটনাস্থলেই
মারা যায়।

লিপি আক্তারের মা ও মামলার বাদী আনোয়ারা বেগম বলেন, আমার মেয়ে লিপি
আক্তারকে তার স্বামী রয়েলসহ তাদের পরিবারের লোকজন মারপিট ও নির্যাতন করে হত্যা করে।। ঐদিনই রাতে হরিপুর থানায় একটি হত্যার অভিযোগ এনে এজাহার দায়ের করি। থানা পুলিশ বিষয়টি আমলে নিয়ে যৌতুকের জন্য মারপিট করতঃ হত্যা ও সহায়তার অপরাধে ২৫মে “২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন
(সংশোধনী/০৩) এর ১১ (ক)/৩০ ধারায় মামলা রুজু করেন ।

এদিকে গৃহবধু হত্যার ২০দিন পেরিয়ে গেলোও হত্যার সাথে জড়িত কাউকে থানা
পুলিশ গ্রেফতার করতে না পারায় লিপি আক্তারের সঠিক বিচার না পাওয়ার ক্ষোভ
প্রকাশ করেছেন নিহতের পরিবার এবং গৃহবধু হত্যার সঙ্গে জড়িত সকল আসামীদের
গ্রেফতার করে দ্রুত আইনের আওতায় নেওয়ার জন্য প্রশাসনের উধ্বর্তন
কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানিয়েছে।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই বেলাল হোসেন বলেন সকল আসামীরা পলাতক থাকায়
তাদের গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে গ্রেফতারের চেষ্টা আব্যাহত
রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...