আজ ৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

পলাশবাড়ীতে ছিনতাইচক্রের ছুরিকাঘাতে চার্জারভ্যান ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা

পলাশবাড়ী  প্রতিনিধি : গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে গলায় ধারালো অস্ত্রের উপর্যুপরি আঘাতে চার্জারভ্যান ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা। অল্পের জন্য প্রাণরক্ষা পেলেও সপ্তম শ্রেণীতে পড়ুয়া কিশোর চালক রুহুল আমিনকে (১৪) রক্তাক্ত গুরুতর জখম অবস্থায় চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে। উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের মেরীরহাটের অদূরে দিগদারী গ্রামের ডাঙ্গাপাড়া মমতাজের পুকুর পাড়ে সোমবার রাতে ঘটনাটি ঘটে।
স্থানীয়রা ঘটনাস্থল থেকে অচেতন রহুল আমিনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য প্রথমে পলাশবাড়ী এবং অবস্থার অবনতি ঘটলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে রংপুরে স্থানান্তর করা হয়। সে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কাটাবাড়ি ইউনিয়নের হামিদপুর গ্রামের (চিত্রাপাড়া) শফিকুল ইসলামের ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, তিন যুবক রুহুল আমিনের চার্জারভ্যান নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় যাতায়াতের রাতে উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের মেরীরহাটের অদূরে দিগদারী গ্রামের ডাঙ্গাপাড়া মমতাজের পুকুর পাড়ে এসে ছিনতাই সংঘটিত করার চেষ্টা করে। কোনকিছু বুঝে উঠার আগেই উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করতে থাকে। ক্ষত-বিক্ষত রক্তাক্ত রুহুলের আত্মচিৎকারে পথচারীসহ স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে ছুঁটে আসার আগেই অবস্থা বেগতিক দেখে ছিনতাইকারীচক্র দ্রুত ঘটনাস্থল হতে সটকে পড়ে। প্রাথমিকভাবে ঘটনার নেপথ্যের কোন কারন জানা যায়নি। কিশোর রুহুল আমিন স্কুল শেষে মাঝে-মধ্যেই পরিবারের সহায়তায় অর্থ উপার্জনে দিনমজুর বাবার চার্জারভ্যানটি নিয়ে অত্রালাকায় ভাড়ায় চালাতো।
রুহুল আমিনের চিকিৎসক ডা. মুনতাসির মাহমুদ শুভ জানান, প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।
থানা অফিসার ইনচার্জ মাসুদুর রহমান হাসপাতালে গিয়ে রুহুল আমিনের সার্বিক খোঁজ খবর নেন। ঘটনার সাথে সম্ভাব্য সম্পৃক্তদের গ্রেফতারে পুলিশি জোর তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানায়। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...