আজ ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৭শে মে, ২০২২ ইং

ষড়যন্ত্রকারীরা বাঙালি জাতিকে নেতৃত্ব শুন্য করার অপচেষ্টা চালিয়েছিল-ডেপুুটি স্পিকার

 জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার এডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া এমপি বলেছেন, ৩রা নভেম্বর বিচ্ছিন্ন কোন দিন নয়। একাত্তরের স্বাধীনতা থেকে শুরু করে একই সুতোতে গেঁথে এসেছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জন্মগ্রহন না করলে বাংলাদেশ সৃষ্টি হতো না। বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর চার জাতীয় নেতাকে কারাগারে হত্যার মধ্যে দিয়ে দ্বিতীয় কলঙ্কজনক অধ্যায়ের সৃষ্টি করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার পরপরেই জেল খানায় জাতীয় চার নেতাকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়। এ ধরনের বর্বর হত্যাকান্ড পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন। ষড়যন্ত্রকারীরা এই হত্যাকান্ডের মাধ্যমে বাংলার মাটি থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নাম চিরতরে মুছে ফেলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধ্বংস এবং বাঙালি জাতিকে নেতৃত্বশুন্য করার অপচেষ্টা চালিয়েছিল।

রোববার (৩ নভেম্বর) দুপুরে ফুলছড়িতে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জেল হত্যা দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডেপুটি স্পিকার উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। ফুলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল গফুর মন্ডলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু রায়হান দোলন,উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আনঞ্জুমনোয়ারা বেগম মেরি, হুকুম আলী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এটিএম রাশেদুজ্জামান রোকন, উদাখালী ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহদী মাসুদ পলাশ, আওয়ামী লীগ নেতা সোলায়মান হোসেন ফুলমিয়া, জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান রকি, যুবলীগ নেতা রাজা মিয়া প্রমুখ। এরআগে জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার এডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...