আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

ফুলছড়িতে সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ শীর্ষক মহিলা সমাবেশ

গাইবান্ধার ফুলছড়িতে সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ শীর্ষক মহিলা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সরকারের সাফল্য ও উন্নয়ন ভাবনা কর্মসূচির আওতায় জনগণকে সচেতন করতে এই সমাবেশের আয়োজন করা হয়।
গাইবান্ধা জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে সোমবার (২ ডিসেম্বর) ফুলছড়ি উপজেলার নাদের হোসেন শিশু নিকেতন চত্বরে সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ শীর্ষক প্রচার কার্যক্রমের আওতায় উন্নত রাষ্ট্র ও জাতি গঠন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্যোগ, সরকারের অর্জিত সাফল্য ও উন্নয়ন পরিকল্পনা, অটিজম, মাদক, সন্ত্রাস নাশকতা, গুজব, জঙ্গীবাদ ও বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ বিষয়ক মহিলা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জিএম সেলিম পারভেজ। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু রায়হান দোলন ও ফুলছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ কাওছার আলী। নাদের হোসেন শিশু নিকেতনের পরিচালক আবদুস ছালাম মিয়ার সভাপতিত্বে মহিলা সমাবেশে বক্তব্য রাখেন গাইবান্ধা জেলা তথ্য অফিসার হায়দার আলী, ফুলছড়ি উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার পাপিয়া সুলতানা, রংপুর ডিআইজি’র প্রতিনিধি এ.এস.আই আমির উদ্দিন, নাদের হোসেন শিশু নিকেতনের অধ্যক্ষ রফিকুর রহমান চৌধুরী, পল্লী চিকিৎসক বিনোদ বিহারী বর্মন প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন, গাইবান্ধা জেলা তথ্য অফিসের অফিস সহকারী আইয়ুব আলী প্রামাণিক। সমাবেশে ফুলছড়ি উপজেলার বিভিন্ন এলাকার নারীরা অংশগ্রহণ করেন।

সমাবেশে অতিথিবৃন্দ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দশটি বিশেষ উদ্যোগের বিস্তারিত বর্ণনা দিয়ে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে প্রতিটি বাড়িতে বিদ্যুৎ পৌঁছেছে, বিদ্যুৎ উৎপাদনের স্বক্ষমতা বেড়েছে, লোড শেডিং অনেক হ্রাস পেয়েছে। সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি ও অন্যান্য কার্যক্রমের ফলে দারিদ্রতার হার ব্যাপক ভাবে হ্রাস পাওয়ার কথা উল্লেখ করে তারা বলেন, মানুষ এখন আর অসহায় নেই। দরিদ্র মানুষ যাদের বাড়ী নাই বা বাড়ী করার সামথ্য নাই তাদের সরকারী উদ্যোগে বাড়ী করে দেয়া হচ্ছে।

উন্নত রাষ্ট্রের শিক্ষা ব্যবস্থা প্রচলন ও বিনা মূল্যে বই বিতরণসহ শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ এর প্রতি জিরো টলারেন্সের ঘোষণা দিয়েছেন। এ ব্যাপারে ফুলছড়ি উপজেলার মানুষকে জোড়ালো ভূমিকা পালন করতে হবে। বাল্য বিবাহ চেষ্টা করা হলে সবাইকে প্রতিরোধ করতে হবে। ঐক্যবদ্ধ ভাবে দেশকে টেকসই উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিতে হবে। এটি সামাজিক ভাবে দেশের সকল নাগরিকের দায়িত্ব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...