আজ ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা পবনাপুর মহিলা কলেজ এমপিও দাবী

গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার ৭ নং পবনাপুর ইউনিয়নের পবনাপুর গ্রামে উপজেলার ৮ টি ইউনিয়নের মধ্যে প্রায় ২ একর জায়গা নিয়ে নারী শিক্ষার প্রসার ঘটাতে গত ২০০০ সালে আওয়ামীলীগ সরকারের শেখ সময়ে পবনাপুর মহিলা কলেজটি স্থাপিত হয়। কিন্তু পরর্বতীতে বিএনপি সরকার ক্ষমতায় আসায় কলেজটি রাজনৈতিক রোষানলে পড়ে যায়। যেকারণে অল্প সময়ের মধ্যে নারী শিক্ষার সফলতায় পাশের হার ভালো হওয়ার পড়েও কলেজটি এমপিও ভুক্ত হয় নাই। কলেজটি এমপিওর করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করেছেন শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মচারী ও এলাকাবাসী।

পলাশবাড়ী পৌর এলাকায় একটি মহিলা কলেজ এমপিও ভুক্ত থাকলেও বাকি ৮ টি ইউনিয়নের কোথাও এমপিও ভুক্ত কোন মহিলা কলেজ নেই। একাডেমিক প্রাপ্ত পবনাপুর মহিলা কলেজটি ৮ টি ইউনিয়নের মাঝামাঝি একত্রিত ২ একর জায়গায় অবস্থিত কলেজরে যেমন সম্পূর্ণ রয়েছে শ্রেনী কক্ষ অবকাঠামো,তেমনি রয়েছে নিজস্ব চাহিদা মোতাবেক আসবাসপত্র, রয়েছে বিদ্যুৎ সংযোগ এছাড়াও বর্তমান সরকারের নতুন সংযোজন শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিটার ল্যাব রয়েছে সজ্জিত এবং আছে অভিজ্ঞ তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক শিক্ষক।

কলেজটির শিক্ষার্থী সংখ্যা আড়াইশত এর অধিক। শিক্ষক ও কর্মচারী রয়েছে ৪২ জন। প্রতিবছরের গড় পাশের হার প্রায় ৭৫ ভাগ। দীর্ঘসময়ে প্রায় ২০ বছর হলো শিক্ষক ও কর্মচারীদের শ্রম ও কষ্টে পূর্ণাঙ্গ ভাবে গড়ে উঠেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি। এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিতে কর্মমূখী শিক্ষার জন্য কারিগরি শাখা সংযুক্ত করা হলে অত্র দরিদ্রতম এলাকার নারী শিক্ষার্থীরা কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে বেকার মুক্ত হতো।

নারী শিক্ষার বিস্তার ঘটাতে বর্তমান সরকারের সময়ে কলেজটির একাডেমিক স্বীকৃতি মিললেও মেলেনি এমপিও ভুক্ত হওয়ার সুযোগ। শিক্ষক কর্মচারীরা মানববেতর জীবন যাপনের মধ্যে দিয়ে চললে প্রতিষ্ঠানটি সাফল্যের লক্ষে কাজ করে যাচ্ছে।

একাডেমিক স্বীকৃতি প্রাপ্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পবনাপুর মহিলা কলেজটি এমপিও ভুক্ত করার বিষয়টি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করেছেন শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মচারী ও এলাকাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...