আজ ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জুন, ২০২১ ইং

খোলাবাজারে নিম্ম আয়ের মানুষের মাঝে (ওএমএস’র) বরাদ্দকৃত সরকারি খাদ্যদ্রব্য কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে ডিলার আটক

রংপুর প্রতিনিধি: রংপুরে স্বল্প আয়ের মানুষের মাঝে খোলাবাজারে (ওএমএস’র) বরাদ্দকৃত সরকারি আটা কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে রাজিব নামে এক ডিলারকে আটক করেছে রংপুর মেট্রেপলিটন কোতোয়ালি থানা পুলিশ। রবিবার বিকালে রংপুর মহানগরীর ১৩নং ওয়ার্ডের পীরজাবাদ এলাকার দরগারপার মাজারের সামনে থেকে রাজিব(৩২) নামে ডিলারকে আটক করা হয়। এ সময় ভ্যানে থাকা ৫০ কেজির দুই বস্তা আটা উদ্ধার করা হয়েছে। রংপুর মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি থানার, সাব ইন্সপেক্টর (এস আই) কামাল হোসেন জানান, ডিলার(m/s.আয়শা সিদ্দিকা) রাজিব মিয়া খোলাবাজারে (ওএমএস) এর আটা স্বল্প আয়ের মানুষের কাছে বিক্রি না করে দীর্ঘদিন থেকে অসাধু ডিলারদের কাছে বিক্রি করে আসছেন। পীরজাবাদ এলাকার মো:আব্দুস সোবহান,আতিয়ার রহমান সহ স্থানিয়রা বলেন, প্রায় সময় এই ডিলার পয়েন্টটি বন্ধ থাকতে দেখা যায়। প্রতিদিন দুস্থ, অসহায় মানুষজন আটা নিতে এসে খালি হাতে ফিরে যান। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন এই ডিলার অবৈধভাবে রাতের আধাঁরে ভ্যানে করে খোলাবাজারে (ওএমএস’র) আটা সরিয়ে ফেলেন। এদিকে, ডিলার রাজিব মিয়া গতকাল রবিবার ৫০ কেজির দুই বস্তা আটা কালোবাজারে বিক্রির জন্য ভ্যানে তুলে। এ সময় বিক্রির বিষয়টি এলাকাবাসির নজরে আসলে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ভ্যানে থাকা আটা দুই বস্তা আটা উদ্ধার করে ডিলার রাজিবকে থানায় নিয়ে আসে। পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান , প্রাথমিক তদন্তে, m/s.আয়শা সিদ্দিকার সাব-ডিলার রাজিবের সঠিক কাগজপত্রের সত্যতা পাওয়া গেছে। তিনি বলেন, সহকারী পুলিশ কমিশনার ও উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন। এ বিষয়ে সহকারী পুলিশ কমিশনার (কোতোয়ালি জোন) জমির উদ্দিন বলেন, ডিলার আটকের বিষয়টি জেনেছি। কাগজের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে, ডিলার রাজিব এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, যেগুলোকে ওএমএসে’র আটা বলা হচ্ছে, তা মূলত ডিলারের অন্য একটি পেয়েন্টে নিয়ে যাওয়া জন্য ভ্যানে তোলা হয়েছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...