আজ ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১শে জুন, ২০২১ ইং

পলাশবাড়ীতে সাংবাদিক কর্তৃক অযাচিত লকডাউনকৃত পরিবারটিকে স্থানীয়দের সহায়তায় উম্মুক্ত :

পলাশবাড়ী প্রতিনিধি : হোম কোয়ারেন্টাই মেনে চলার অঙ্গিকার গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী পৌর এলাকার উদয়সাগর গ্রামে মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে মিলন নীলফামারিতে তাবলীগ জামাত হতে বাড়ী ফিরে আসায় এ অসহায় পরিবার কে স্থানীয় এক সাংবাদিক অযাচিত ভাবে স্থানীয় প্রতিবেশীদের কোন প্রকার অভাব অভিযোগ না থাকা স্বর্তেও এ পরিবারটিকে লকডাউন ঘোষণা করে তার বসতবাড়ীর মূলফটকে লড ডাউন লেখা কাগজ টাঙ্গিয়ে দেয়। এতে পরিবারটি দারুন ভাবে হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়ে। গত তিনদিন হতে তারা এই জোড়পূর্বক চাপিয়ে দেওয়া দায় হতে উদ্ধারে স্থানীয়দের নিকট কান্নাকাটি করে।

এরপরে আজ শুক্রবার জুম্মার নামাজের আগ মহুর্তে পরিবারটির কারো কোন করোনা উপসর্গ না থাকায় তাদের উম্মুক্ত করে দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে তাবলীগ জামাত ফেরত মিলন কে হোম কয়ারেন্টাউন মেনে চলার জন্য বলা হয়। মিলন বলেন,আমার কোন প্রকার করোনা উপসর্গ নেই তবুও আমার উপর জোড়পূর্বক চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে করোনা অপবাদ। যে অপবাদে আমি আমার পরিবারকে নিয়ে দারুন হতাশায় পড়েছি। আজ গ্রাম ও মহল্লাবাসীর হস্তক্ষেপে আমি ও আমার পরিবার মুক্ত হলেও আমি ও আমরা হোম কোয়ারেন্টাইন মেনে চলবো। স্থানীয় প্রতিবেশী দুদু,সুমনসহ অন্যান্যরা জানান,বিষয়টি পুরোপুরি গুজব। মিলনের পরিবারটি ধর্মভীরু মাটির মতো তাদের হাজার আঘাত করলেও কাউকে কিছু বলেনা। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এই সাংবাদিক এই পরিবারটি লকডাউন চাপিয়ে দেয়। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হলে তারা কোন ব্যবস্থা নেননি বিধায় আমরাও হতাশ। উপজেলা ও থানা হতে ৪০০ গজের মধ্যে ও সি সার্কেল অফিস হতে ১০০ গজের মধ্যে এ পরিবারটি বসবাস হলেও এই অযাচিত লকডাউন করা হলেও কেউ এগিয়ে আসেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...