আজ ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে মে, ২০২৪ ইং

ক্ষুধার জ্বালা করোনার চেয়েও ভয়ঙ্কর!


গাইবান্ধা প্রতিনিধি : দিন যতো যাচ্ছে করোনার বিস্তার ততোই বাড়ছে । বর্তমানে পুরো বিশ্বে আতঙ্কের নাম এখন করোনা ভাইরাস ।বহু দেশকে নাজেহাল করে করোনা এখন বাংলাদেশে। বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর অর্থনীতি এখন করোনার আঘাতে বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছে ।
বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে গত ৮ মার্চ । শুরুর দিকে সংক্রমণ হার কিছুটা কম হলেও বর্তমানে বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণ আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে।

গত ১৮ মার্চ থেকে দেশে সকল প্রকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয় । এরপর থেকে রাস্তাঘাটে সীমিত যানচলাচল, গনপরিবহন ও মার্কেট বন্ধ ঘোষনা করা হয় । এতে কর্মহীন হয়ে পড়ে দেশের নিম্ন আয়ের,ও মধ্য আয়ের মানুষেরা । বিশেষ করে যারা দিন আনে দিন খায়। প্রতিদিনের স্বল্প আয়ে সংসার চলে তারাই বিপাকে পড়েছেন বেশি । কাজ বন্ধ থাকায় আয় রোজগার সব বন্ধ হয়ে এসব মানুষেরা এখন তীব্র সংকটে পড়েছে।

ত্রানের জন্য মানুষের হাহাকার যেন দিন দিন বাড়ছে । শুধু যে নিম্ন আয়ের মানুষেরা ত্রাণ প্রত‍্যাশী তা নয় এই কাতারে যুক্ত হচ্ছে মধ‍্যবিত্তরা । কারণ ঘরে নেই অর্থ ফুরিয়ে যাচ্ছে সঞ্চিত খাদ্য। উৎকণ্ঠা ও আতঙ্ক যেন দিন দিন বাড়ছে ।
করোনা সংক্রমণ রোধে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করে চলাচল করতে বলা হলেও মানুষ ক্ষুধার জ্বালায় করোনার ভয়কে তুচ্ছ করে ত্রানের দাবিতে গা ঘেঁষে দাঁড়িয়ে হাতে হাত রেখে বিক্ষোভ করছে । স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের বাড়িতে হামলা করেছে ।এ পরিস্থিতি যেন সত্যি ভয়াবহ ।

ত্রানের দাবিতে গাইবান্ধায় বেশ কয়েক জায়গায় ক্ষুধার্ত দরিদ্র মানুষেরা বিক্ষোভ করেছে ।গত ১৭ এপ্রিল গাইবান্ধা সদর উপজেলার বোয়ালী ইউনিয়নের কয়েক হাজার গ্রামবাসী ত্রানের দাবিতে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেছে । এছাড়া গোবিন্দগঞ্জেও ইউপি চেয়ারম্যানের বাড়িতে ত্রাণ প্রত‍্যাশীরা ত্রানের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে। এসব বিক্ষোভ সমাবেশে কয়েক হাজার মানুষ একত্রিত হওয়ায় করোনা সংক্রমণ ঝুঁকি আরো বাড়ছে তবে সেদিকে কারো খেয়াল নেই। ক্ষুধার জ্বালা করোনার চেয়েও ভয়ঙ্কর।

শুধু ত্রানের জন্য নয় টিসিবির পণ্য কিনতেও সামাজিক দুরত্ব না মেনেই খাদ্য সংগ্রহ করতে ব‍্যাস্ত মানুষ ্। এছাড়া বাজারগুলোর অবস্থা তো আরো খারাপ । বাজারে ভীর দেখলে মনে হবে না যে এখন লক ডাউন চলছে । সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা করতে সাধারণ মানুষের ব‍্যাপক অনীহা দেখা যায়।

গাইবান্ধা জেলার বোয়ালী ইউনিয়নের ত্রানের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশে থাকা এক দিনমজুর প্রতিবেদকের সামনে, কান্নায় ভেঙে পড়েন বলেন তার ঘরে কোন খাবার নেই হাতে কোন টাকা নাই । ছোট বাচ্চা ঘরে আছে । কি করবে বুঝতে পারছে না সে । তাই ঘরে না থেকে রাস্তায় নেমেছি । ঘরে থাকলে কেউ খাবার দেয় না।

আন্দোলনে উপস্থিত আরেকজন রিকশা চালক বলেন , প্রতিদিনের আয়ে সংসার চালাতে হতো কিন্তু এখন আয় নাই । ঘরে খাবার নেই বিভিন্ন নেতার বাড়িতে বাড়িতে ঘুরেও সাহায্য পাইনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...