আজ ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে মে, ২০২৪ ইং

টাঙ্গাইলে স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টা স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের গোপালপুরে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীর শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে মেরে ফেলার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে এক স্বামীর বিরুদ্ধে। নির্যতিত নারী বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধিন আছে। এব্যাপারে গোপালপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে নির্যাতিতার বড় ভাই।  

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ১২ বছর পূর্বে গোপালপুর উপজেলার দক্ষিন পাথালিয়া সওদাগর পাড়া গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে আইয়ুব আলীর সাথে বিয়ে হয় একই উপজেলার নন্দনপুর গ্রামের মোক্তার আলীর মেয়ে শান্তার কেগমের সাথে। বিয়ের সময় স্বামীর দাবি অনুযায়ী তাকে ৫০ হাজার টাকাও যৌতুক দেওয়া হয়। বিয়ের কিছুদিন যেতেই পুনরায় যৌতুকের দাবি করেন নির্যাতিতার স্বামী। এনিয়ে শুরু হয় সংসারে চরম অশান্তি। 

গত মঙ্গলবার সকালে আবারও যৌতুকের টাকা নিয়ে পারিবারিক কলহ হয়। এক পর্যায়ে গৃহবধূর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয় পাষন্ড স্বামী। এতে তার শরিরের বেশ কিছু অংশ পুরে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে পরে তাকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানোয় হয়। 

গতকাল বুধবার নির্যাতিতার শারিরিক অবস্থা আরো অবনতি হওয়ায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল থেকে ঢাকা বার্ন ইউনিটে রেফার করেন কর্তব্যরত ডাক্তার। কিন্তু নির্যাতিতার কাছে টাকা না থাকা সে আর ঢাকা যেতে পারেনি। বুধবার রাতে নির্যাতিতা গোপালপুর থানায় এসে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেন। পরে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান মামলা নিয়ে নির্যাতিতার চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দেন। তিনি দ্রুত নির্যাতিতার স্বামীকে গ্রেফতার করা হবে বলেও জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...