আজ ৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই অক্টোবর, ২০২১ ইং

পুলিশের বিশেষ অভিযানে ৮ নৈশকোচ আটক

গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধা সদর থানা পুলিশ ও সাদুল্লাপুর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৮টি নৈশকোচ আটক করে চার শতাধিক যাত্রীকে(পোশাক কারখানার শ্রমিক)বাড়িতে ফেরত পাঠিয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এঘটনা ঘটেছে। এব্যাপারে নৈশকোচ মালিকদের বিরুদ্ধে মটরযা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার দিকে কোন প্রকার অনুমতি ছাড়াই লকডাউনের আদেশ অমান্য করে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা জান্নাত পরিবহনের দুইটি নৈশকোচ শতাধিক যাত্রী(পোশাক কারখানার শ্রমিক) নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে। সদর থানা পুলিশ খবর পেয়ে যাত্রীসহ ঢাকাগামী নৈশকোচ ২টি আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরবর্তীতে থানা পুলিশ যাত্রীদের বাড়ি ফেরত পাঠিয়ে দেয় এবং নৈশকোচগুলো আটক করে।
গাইবান্ধা সদর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খান মোঃ শাহরিয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, করোনা প্রতিরোধে সরকারি লকডাউন আদেশ অমান্য করে যাত্রী পরিবহন করায় নৈশকোচ দুটির মালিক পলাশবাড়ী উপজেলার বাসিন্দা সারোয়ার হোসেন বিপ্লবের বিরুদ্ধে মটরযান আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এই অভিযান চলমান থাকবে।
অপরদিকে একইদিন রাত ৯ টার দিকে সাদুল্লাপুর উপজেলার নলডাঙ্গা ও সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গা থেকে ছেড়ে আসা ফাতেমা এন্টারপ্রাইজসহ ৬টি নৈশকোচ লকডাউন নির্দেশনা অমান্য করে তিন শতাধিক যাত্রী(পোশাক কারখানার শ্রমিক)নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে। খবর পেয়ে সাদুল্লাপুর থানা পুলিশ নৈশকোচ ৬টি আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরে যাত্রীদের ছেড়ে দিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। সাদুল্লাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মাসুদ রানা বলেন, সরকারি লকডাউন আদেশ অমান্য করে যাত্রী পরিবহন করায় মটরযান আইনে নৈশকোচ ৬টির মালিকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...