আজ ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুন, ২০২১ ইং

ফরিদপুরে দু দল গ্রাম বাসির সংঘর্ষে ১৫জন আহত।

ফরিদপুর প্রতিনিধি : ফরিদপুরের সালথায় গ্রাম্য অধিপত বিস্তার নিয়ে দুই দলের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ১৫ জন আহত হয়। আজ মঙ্গলবার (৫মে)সকাল ৮টার দিকে উপজেলার মাঝারদিয়া ইউনিয়নের খলিশপুটি গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের ফরিদপুর সদর হাসপাতাল ও নগরকান্দা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, খলিশপুটি গ্রামের অধিপত নিয়ে সোমবার বিকালে ইউপি সদস্য সাহেব আলী মোল্যার সমর্থক হেমায়েত ফকির সাবেক ইউপি সদস্য জাহিদ মোল্যার সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এরই সুত্রধরে মঙ্গলবার সকালে দুই দলের সমর্থকরা দেশিয় অস্ত্র নিয়ে দু পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সংঘর্ষে উভয় দলের অন্তত ১৫ জন আহত হয়। আহতদের ফরিদপুর সদর হাসপাতাল ও নগরকান্দা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। এবিষয়ে ইউপি সদস্য সাহেব আলী মোল্যা বলেন, একটি মেয়েলি ঘটনা নিয়ে মাস খানেক ধরে জাহিদ মেম্বারের সাথে বিরোধ চলে আসছে। সোমবার বিকালে সেই ঘটনা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এরই জেরধরে সকালে সংঘর্ষ বাধে। এতে আমার সমর্থক ১০জন আহত হয়েছে। এরমধ্যে মোকলেছ মোল্যা, আনিস শেখ, ইসমোতারা বেগমকে ফরিদপুর সদর হাসপাতালে ও শাহাদৎ মোল্যা, মিজানুর মোল্যা, আব্দুল হাই মোল্যা, জসিম মোল্যা, ইনছুর মোল্যা, রোমান মোল্যাকে নগরকান্দা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। সাবেক ইউপি সদস্য জাহিদ মোল্যা বলেন, পুর্ব শত্রুতার জেরধরে সাহেব মেম্বারের সমর্থকদের সাথে আমার সমর্থকদের সংঘর্ষ বাধে। এতে আমার দলের ইউনুছ মোল্যা, টিটুল মোল্যা, শরিফুল মোল্যাসহ ৫জন আহত হয়। এরমধ্যে তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি দুইজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। সালথা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকা শান্ত রাখতে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...