আজ ৫ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জুন, ২০২১ ইং

ভাঙ্গার লক্ষিপুর গ্রামে মিথ্যা মামলা দিয়ে বাড়িঘর লুটপাটের অভিযোগ

ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার মানিকদহ ইউনিয়নের লক্ষিপুর গ্রামে একটি হত্যা মামলাকে পুঁজি করে অর্ধশতাধিক ব্যক্তির বাড়ীতে হামলা চালিয়ে লুটপাট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিগত ২০ দিন ধরে ধারাবাহিক ভাবে এ লুটপাট ও ভাংচুর চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন হামলার ভয়ে পালিয়ে থাকা ব্যক্তিরা।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, বৃষ্টির পানি জমিতে পড়াকে কেন্দ্র করে রোকমান বেপারী গংদের সাথে গত ২১ এপ্রিল শহিদ মাতুব্বর গংদের কথা কাটাকাটি ও পরে সংঘর্ষ হয়। এতে খুন হন লক্ষিপুর গ্রামের শহিদ মাতুব্বর। এ ঘটনাকে পুঁজি করে গ্রাম্য বিরোধকে কাজে লাগিয়ে প্রতিপক্ষের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করেন গ্রাম্য মাতুব্বর শাহজাহান। অভিযোগ করে বলা হয়, শহিদ মাতুব্বর খুন হলেও তার স্বজনদের কাউকেও মামলার বাদী করা হয়নি।

শাহজাহান মাতুব্বর নিজে বাদী হয়ে প্রতিপক্ষের ৫৪ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করে। যার বেশীর ভাই আসামীই সংঘর্ষের সাথে জড়িত ছিলেন না। এমনকি যাদের আসামী করা হয়েছে তারা ভিন্ন তিনটি উপজেলার মানুষ। রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের জন্য শাহজাহান মাতুব্বর নিজে বাদী হয়ে খুনের এ মামলাটি করে প্রতিপক্ষকে হয়রানী করছেন। শুধু তাই নয়, এ মামলার পর থেকে শাহজাহানের নেতৃত্বে অর্ধশতাধিক বাড়ী ঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক লুটপাট করা হয়। যা বর্তমানেও অব্যাহত রয়েছে। মামলার আসামীরা গ্রাম থেকে পালিয়ে বেড়ানোর কারনে লুটপাট করে ঘরের সমস্ত মালামাল নিয়ে যাচ্ছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

ঘরের আসবাবপত্র থেকে শুরু করে মাঠের ফসলও কেটে নিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তারা। ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে বলেন, শাহজাহান মাতুব্বর অতি চতুরতার সাথে নিজে খুনের মামলার বাদী হয়ে এবং নিজেদের লোকদের সাক্ষি করে প্রতিপক্ষকে নাজেহাল করছে। এলাকার আধপত্য বিস্তার ধরে রাখতে সে প্রতিপক্ষের লোকজনদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে এলাকা ছাড়া করতে বাধ্য করেছে। সংবাদ সম্মেলন থেকে সঠিক তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের প্রতি আহবান জানান ভুক্তভোগী ব্যক্তিরা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...