আজ ৫ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জুন, ২০২১ ইং

সান্তাহারে রেলওয়ের সরকারী জমিতে ঘর নির্মাণ

সান্তাহার প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার ঐতিহ্যবাহী জংশন সান্তাহার রেলওয়ের সরকারী জমিতে আইনের নীতিমালা না মেনে ঘর নির্মাণ করছেন শহীদ সরদার নামের এক ব্যক্তি। সান্তাহার পৌর শহর পান্নার মোড় নামক স্থানে সরকারী জমি দখল করে নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে । এনিয়ে স্থানীয় রেলকর্তৃপক্ষ ওই ব্যক্তিকে নিষেধ করলেও প্রভাব খাটিয়ে নির্মাণের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। য়ার কারণে সরকার হারাচ্ছে কোটি টাকার সম্পদ। 
বগুড়ার সান্তাহার বৃহত্তর রেলওয়ে জংশন যেখানে সরকারের কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি বিদ্যামান। যার বেশির ভাগই দখল করে ভোগ করছেন স্থানীয় প্রভাবশালীরা। রেললাইনের বাইরে থাকা বেশির ভাগ জমিই বেদখলে চলে গেছে।এতে বছরের পর বছর রেলের জমি বেদখলে থেকে যাচ্ছে। ফলে বাড়ছে দখল হওয়া জমির পরিমাণ। আর সরকার হারাচ্ছে কোটি কোটি টাকার সম্পদ।
পৌর এলাকায় জমি দখলকারী শহীদ সরদার সাংবাদিককে বলেন, এবিষয়ে ফোনে কথা বলা যাবেনা, দেখা করেন।  
এষ্টেট বিভাগের সান্তাহার রেলওয়ে কানুনগোর কার্যলয়ের চেইন ম্যান হুমায়ুন কবির জানান, শহীদ সরদারের নামে ঘর নির্মাণের প্রয়োজনীয় কোনো কাগজপত্র নেই। ইতিপূর্বে তাকে নিষেধ করা হয়েছে।
শহীদের ঘর নির্মাণ বিষয়ে প্রশ্ন করতেই সান্তাহার রেলওয়ে উপ-সহকারী প্রকৌশলী (কার্য) নারায়ণ চন্দ্র সরকার সাংবাদিককে বলেন, আমি সবই জানি। শুনলাম আজকেও নাকি ঘর নির্মাণ করছে। আমি প্রশাসনকে বলেছি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য। তিনি আরও বলেন, পৌর এলাকায় রেলওয়ে সরকারী জমিতে ঘর নির্মাণের কোনো অনুমতি নেই। ওই ব্যক্তিকে অনেক বার নিষেধ করা হয়েছে। সে কোনো কথা না শুনে প্রভাব খাটিয়ে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। তার বিরুদ্ধে শীঘ্রই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
পাকশী রেলওয়ে এষ্টেট বিভাগের প্রধান সহকারী (বড় বাবু) মোঃ সানাউল্লাহ জানান, পৌর শহরে লাইসেন্স বিহীন ঘর নির্মণ করা বেআইনি। যদি কেউ করেও থাকে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...