আজ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে অক্টোবর, ২০২১ ইং

 শ্রমিকনেতার  দায়ের করা মিথ্যা মামলায়  সাংবাদিক রতনের জামিন

গাইবান্ধা  প্রতিনিধি : গাইবান্ধা জেলা বাস মিনিবাস কোচ ও মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ও ফাতেমা পরিবহনের মালিক আব্দুস সোবাহান বিচ্চুর দায়েরকৃত মামলায় অবশেষে সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতন গতকাল ২৮ মে বৃহস্পতিবার জামিনে মুক্ত হয়েছেন।

সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতন ঢাকা থেকে প্রকাশিত দৈনিক মানবজমিন,বগুড়া থেকে প্রকাশিত দৈনিক চাদনীবাজার ও চ্যালেন এস এর উপজেলা প্রতিনিধি হিসাবে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করছেন।

করোনার এই সময়কালে লক ডাউনের মধ্যে গণপরিবহন চালানোয় একাধিকবার ফাতেমা পরিবহন গাড়ী আটক ও একাধিক মামলা হয় “ এরপর সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতন তার ব্যবহৃত ফেসবুক আইডি হতে ”মহাসড়কে গাড়ীর সামনে কোন পুলিশ বা সার্জেন্ট দাড়ালে ওদের মেরে দিতে ড্রাইভারদের নির্দেশ শ্রমিক নেতা বিচ্চুর” এ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশসহ একাধিক সংবাদ প্রকাশের পর গত ১২ মে গাইবান্ধা জেলা বাস মিনিবাস কোচ ও মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সোবহান বিচ্চু বাদি হয়ে তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনের ২৫(২)২৯(১)৩১(২) ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ ইং ৩৮৫/৫০৬ পেনাল কোর্ট ১৮৬০; ফেসবুকে মানহানিকর তথ্য প্রকাশ করার অপরাধে মামলা দায়ের করেছে পলাশবাড়ী থানায় । যে মামলা নং ১৪/১০৭। ২৬ মে গ্রেফতারের পর এ মামলায় অবশেষে ২৮ মে বৃহস্পতিবার বিজ্ঞ আদালতে অনলাইনে জামিন আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালতে দীর্ঘক্ষণ শুনানি শেষে জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন বিজ্ঞ আদালতের ম্যাজিস্টেট ওপেন্দ্র চন্দ্র দাস।

এখবর নিশ্চিত করেন সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতনের আইনজীবী এ্যাড.এম মাজাহারুল ইসলাম সোহেল বলেন, সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতনের জামিনের মধ্য দিয়ে মিথ্যার পরাজয় হয়েছে আর সত্যের জয় হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৬ মে নিজ বসতবাড়ী থেকে গ্রেফতারের পর সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতন কে উক্ত মামলায় বিজ্ঞ আদালতে পাঠিয়ে দেয় পলাশবাড়ী থানা পুলিশ। এরপর বিজ্ঞ আদালতে অনলাইনে সিরাজুল ইসলাম রতনের জামিন আবেদন করা হলে আবেদনের শুনানি শেষে সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতনের আইনজীবীর মাধ্যমে করা জামিন আবেদন নাকচ করে সাংবাদিক সিরাজুল রতনকে জেল হাজতে প্রেরণ করে বিজ্ঞ আদালতের বিজ্ঞ ম্যাজিস্টেট ওপেন্দ্র চন্দ্র দাস । গ্রেফতারের ৩ দিন পর একই আদালতে জামিন লাভ করে মুক্ত হন সিরাজুল ইসলাম রতন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...