আজ ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং

সংসদ সদস্যের ডিওলেটার প্রত‍্যাখান করলেন প্রধান শিক্ষক

পলাশবাড়ি প্রতিনিধি : গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় এমপির ডিও লেটার, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এবং পৌর মেয়রের সুপারিশ পত্রকে অবজ্ঞা করে আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে প্রধান শিক্ষক (ভার প্রা:) হারুন অর রশিদ। এহেন ধৃষ্টতা দেখিয়ে  তার নিজ ভাইকে স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি নির্বাচিত করায় অভিভাবক ও সুধীমহলের মাঝে চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

মোছাঃ তাহমিনা বেগমের লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, পলাশবাড়ী পৌরসভার বঙ্গবন্ধু বালিকা উচ্চ বিদ‍্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও সাবেক এমপি বঙ্গবন্ধুর সহচর মরহুম তোফাজ্জল হোসেন সরকার উক্ত কমিটির ২৭ বছর সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। তার মৃত্যুর পর গাইবান্ধা-৩ (পলাশবাড়ী-সাদুল্লাপুর) আসনের এমপি অ‍্যাড, উম্মে কুলছুম স্মৃতি মরহুম তোফাজ্জল হোসেনের মেয়ে মহিলা ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক মোছাঃ তাহমিনা বেগমের নামে একখানা ডিওলেটার ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের ২৮ তারিখে প্রেরণ করেন।

পাশাপাশি উক্ত বিদ‍্যালয়ের ভারঃ প্রধান শিক্ষক হারুনুর রশিদকেও বিষয়টি অবহিত করেন। প্রধান শিক্ষক কমিটি গঠনের নিমিত্তে ডিও লেটার মনোনীত ব‍্যক্তির নাম প্রস্তাব না করে গোপনে নিজ সুবিধা নেয়ার জন্য তার পরিবারের জামায়াত-শিবিরের সাথে সংশ্লিষ্ট ব‍্যক্তির নাম সহ ৪ জনের নাম প্রস্তাব করে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড দিনাজপুরে গত ২০২২ সালের ১২ এপ্রিল এডহক কমিটির কাগজ প্রেরণ করেন।

প্রধান শিক্ষকের প্রেরণকৃত পত্র অনুযায়ী ২০২২ সালের ১২ মে ৬ মাসের জন‍্য শিক্ষা বোর্ড এ‍ডহক কমিটি অনুমোদন করেন। যাহা বতর্মান প্রেক্ষাপটে রাজনৈতিক মহলকে ভাবিয়ে তুলেছে এবং এলাকায় চাপাক্ষোভ বিরাজ করছে।

এবিষয়ে উক্ত স্কুলের প্রধান শিক্ষক জানান, আমার ভাইকে সভাপতি বানিয়েছি দাতা সদস‍্য হিসেবে। সে কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত নয়। তবে এমপি মহোদয় যার নামে ডিওলেটার দিয়েছিলেন আসলে সে একজন প্রভাষক হওয়ায় তার নাম প্রস্তাব করা সম্ভব হয়নি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহতাব হোসেন জানান, স্কুলটি সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা ও উন্নয়নের স্বার্থে এমপি মহোদয়ের ডিওলেটারটির সম্মান দেখানো উচিত ছিল প্রধান শিক্ষকের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...