আজ ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ই আগস্ট, ২০২২ ইং

নাবালিকা ছাত্রী কে নিয়ে উধাও হলেন মাদ্রাসা শিক্ষক

পলাশবাড়ি প্রতিনিধি: নিখোজের ৬ দিনেও সন্ধান মেলেনি গাইবান্ধা পলাশবাড়ি উপজেলার সিনিয়র মহিলা মাদ্রাসার ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী (১১) রাজিয়া সুলতানার।
নিখোজ রাজিয়ার পারিবারিক সুত্রে জানাযায় গত ১১ জুলাই প্রতিদিনের ন্যায় পলাশবাড়ি উপজেলার বাশকাটা এলাকার নিজ বাড়ি হতে  রাজিয়া মাদ্রাসায় গেলেও যথা সময়ে ফিরে আসে নি। পরে অভিভাবক এবং এলাকাবসী অনেক খোজাখুজির পরও রাজিয়া কে খুজে না পেয়ে রাজিয়ার বাবা পলাশবাড়ি থানায় একটি নিখোজ ডায়েরি করে। নিখোজ ডায়েরি করার ৬ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন ব্যবস্থা গ্রহন করে নি বলে দাবী রাজিয়ার পরিবারের।
নাবালিকা রাজিয়া নিখোজের পর থেকেই বিভিন্ন মহলে আলোচনার ঝড় উঠে ঐ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক তাজুলের বিরুদ্ধে, এই শিক্ষক তাজুল বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে শ্রেনি কক্ষে এবং এর বাহিরেও রাজিয়া কে কৌশলে বিরক্ত করত এবং বিভিন্ন কু প্রস্তাব দিত। সকল বিষয় বিশ্লেষনে ঘটনার দিন হতে এখন পর্যন্ত শিক্ষক তাজুল নিজেও গা ঢাকা দিয়ে রয়েছে সেই সাথে তার ব্যবহৃত মুঠো ফোন টি বন্ধ করে রেখেছে। তাজুলের বিষয়ে রাজিয়ার বাবা নুর ইসলামের সাথে কথা বললে তিনি জানান, তার মেয়ে কে শিক্ষক তাজুল বের করে নিয়ে গেছে বিষয়টি স্বীকারের পাশাপাশি তাজুল পলাশবাড়ি উপজেলার একজন প্রভাবশালী নেতার নিকট আত্নীয় হবার সুবাদে তাকে পুলিশ গ্রেফতার করছে না বলেও অভিযোগ করেন।
এ সকল অভিযোগের বিষয়ে পলাশবাড়ি থানার অফিসার ইনর্চাজ মাসুদুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান আমরা আমাদের সর্বচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছি এবং অতিদ্রুত রাজিয়াকে উদ্ধার সহ আসামী কে গ্রেফতার করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...