আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ইং

অবৈধ ড্রেজার বসিয়ে বালু উত্তোলন ভ্রাম্যমান আদালতে ১লক্ষ টাকা জরিমানা

পাঁচবিবি(জয়পুরহাট)প্রতিনিধিঃ জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া শাখা যমুনা নদীতে দীর্ঘদিন থেকে অবৈধ ড্রেজার বসিয়ে বালু উত্তোলন। ভ্রাম্যমান আদালতে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে উপজেলা প্রশাসন। জানা যায়, উপজেলার বাগজানা, আটাপাড়া ও গদাইপুর নামক স্থানে শাখা যমুনা নদীতে সরকার নিষিদ্ধ অবৈধ ড্রেজার বসিয়ে নদীর তলদেশ থেকে বালু উত্তোলনের ফলে নদীর তীরবর্তী কৃষকের শতশত বিঘা ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেলেও বালু বানিজ্য করে কোটি কোটি টাকার সম্পদের মালিক বনে যাচ্ছে বালু দস্যুরা। সংশ্লিষ্ট এলাকায় বালু উত্তোলনের ড্রেজার আঘাতে কৃষকের জমি নদীগর্ভে বিলিন হয়ে গেছে। এই বালু দস্যুদের বালু উত্তোলন বন্ধে স্থানীয় কৃষকরা সংশ্লিষ্ট একাধিক দপ্তরে অভিযোগ প্রদান করলেও বালু উত্তোলন বন্ধ হয়নি। ফলে গভীর রাত থেকে ড্রেজার চালিয়ে শত শত ট্রাক্টর বালু উত্তোলন করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে বাগজানা ইউনিয়ন ভূমি অফিসের কর্মকর্তা আবু বক্কর ছিদ্দিক এর সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, বালু উত্তোলনের ফলে কৃষকের ফসলী জমি নদীগর্ভে বিলিন হয়ে যাচ্ছে মর্মে কৃষকের কথা বিবেচনা রেখে গত ০৩/১১/২০১৯ তারিখে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও (ভূমি) কর্মকর্তার নিকট ড্রেজারের ছবি সম্বলিত একটি অভিযোগ দিয়েছি। এ দিকে গত মঙ্গলবার (৩১ শে ডিসেম্বর) রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পাঁচবিবি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে বালু বহনকারী ৭টি ট্রাক্টর (মেসি) জব্দ করে বাগজানা ইউনিয়ন পরিষদের হেফাজতে রাখে গ্রাম পুলিশ । পরে রাতেই উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ৭টি ট্রাক্টরের ৫০ হাজার ও বালু উত্তোলনকারীর ৫০হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এবিষয়ে বাগজানা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ নাজমুল হক জানান অবৈধ ভাবে বালু তোলার অভিযোগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাদিম সারোয়ার তার নিজ কার্যালয়ে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে জব্দ কৃত ৭টি ট্রাক্টর (মেসি) ও ড্রেজার বসিয়ে বালু তোলার অভিযোগে সাজু ও হিরো নামের দুজনকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...