আজ ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং

লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়ুশকে ২০,০০০ টাকা জরিমানা করা অন্যায়

গণ উত্তরন ডেক্স : ভারতের লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ে খিদের চোটে ছাত্রাবাসের মধ্যেই বসে দুপুরের খাবার খাচ্ছিলেন এক পড়ুয়া।  নিয়ম না মেনে কেন্দ্রীয় ছাত্রাবাসের মধ্যে খাবার খাওয়ার জন্য স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ওই ছাত্রকে ২০,০০০ টাকা জরিমানা দিতে বলা হয়েছে। এখানেই শেষ নয়, ওই পড়ুয়াকে ১০০ টাকার স্ট্যাম্প পেপারে একটি হলফনামা জমা দিতেও বলা হয়েছে। ৩ সেপ্টেম্বর ঘটেছে এই ঘটনাটি। ওই ছাত্রের নাম আয়ুশ সিং। ওই বিশ্ববিদ্যালয়েই ) কলা বিভাগে স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের পড়াশোনা করেন তিনি। কেন্দ্রীয় মেসে গিয়ে দুপুরের খাবার খাওয়ার সময় এই বিপত্তিটি ঘটে। নিয়ম অনুসারে, কেবলমাত্র ছাত্রাবাসের আবাসিকরাই কেন্দ্রীয় ছাত্রাবাসে খাবার খেতে পারেন।

একজন ছাত্র বলেন, “কেউ একজন বিষয়টি প্রোক্টরকে জানায়, তিনি খবর পেয়েই চলে আসেন এবং তাঁকে হাতেনাতে খাবার খাওয়া অবস্থায় ধরে ফেলেন। আয়ুশ সিং সঙ্গে সঙ্গেই ক্ষমা চেয়েছিলেন এবং বলেছিলেন যে তাঁর খুব জোরে খিদে পেয়েছিল, তাই খিদের চোটে ওখানেই বসে খেয়ে নেন। ভবিষ্যতে আর কখনও নিয়ম ভঙ্গ না করারও প্রতিশ্রুতিও দেন আয়ুশ।”

 প্রোক্টর প্রফেসর বিনোদ কুমার সিং আয়ুশ সিংকে নোটিশ দিয়েছেন এবং এক সপ্তাহের মধ্যে জরিমানা জমা দিতে বলেছেন। জরিমানা না দিলে আরও কড়া শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। প্রোক্টর জানান, তাঁর কাছে তথ্য ছিল যে, ওই শিক্ষার্থী প্রায়শই রেজিস্টারে নকল নাম দিয়ে সই করে কেন্দ্রীয় ছাত্রাবাসে খাবার খেত।

তবে এই পদক্ষেপে শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ। “তিনি ক্ষমা চেয়েছেন এবং কর্তৃপক্ষ চাইলে তাঁর কাছ থেকে ওই খাবারের জন্য টাকা নিতে পারত। আয়ুশকে ২০,০০০ টাকা জরিমানা করা অন্যায়, কারণ কারও খিদে পেলে তখনই সে খায়। আয়ুশ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কিছু নেননি,” আয়ুশের সমর্থনে বলেন একদল শিক্ষার্থী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...