আজ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে অক্টোবর, ২০২১ ইং

আনন্দ টিভির সাংবাদিক কর্তৃক ৫০ লক্ষ টাকার প্রতারনা

রংপুর প্রতিনিধি: রংপুর জেলার ধাপ এলাকার বাসিন্দা রেনু বেগম। সরকারী চাকুরী করে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরে গঙ্গাচড়া উপজেলায়। বাড়ীতে থাকেন বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া এক মাত্র মেয়েকে নিয়ে।বিধবা এই মহিলার সরলতার সুযোগ নিয়ে নুরনবী ও তার এই প্রতারনা চক্রের আরো চারজন সোহাগ খান, মিলন আহমেদ,মিরন আহমেদ ও গাড়ীর ড্রাইভার তারা সবাই আনন্দ টিভিতে চাকুরী করে প্রায় রংপুরে আসা যাওয়া করতো।

রেনু বেগম জানান, এই নুরনবী ১ বছর অতিবাহিত হওয়ার পর আমাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয় এবং বলে আমরা এখন থেকে স্বামী স্ত্রী। আর এই সুযোগ নিয়ে প্রায় তার কাছ থেকে প্রায় ২০ লক্ষ টাকা নিয়ে যায় বিভিন্ন মাধ্যমে (তার প্রমান আছে কাছে)।

এই কিছু দিন আগে আমাকে উলটো প্রতারনার অভিযোগ করলে আমি তাকে কোনো কিছু বুঝতে না দিয়ে আরো টাকা দেওয়ার কথা বলে গত মঙ্গলবার রংপুরে নিয়ে আসি।

এসময় তার কাছ থেকে আমি সহ আরো সাত আটজন চাকুরীর জন্য (প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা)ফেরত চাইলে সে আমাদের কে পুলিশে দেওয়ার হুমকি দেয়। পরে বিষয়টি মেট্রোপুলিশের জানালে নুরনবী কে পুলিশ গ্রেফতার করে কোটে চালান করে। কোট নুরনবীকে জেল হাজতে প্রেরন করে। নুরনবী এখন রংপুর জেলে অন্তরিন।

অন্য দিকে রংপুর মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাজিব আহমেদ জানান, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। প্রধান আসামী নুরনবী কে কোর্টের মাধ্যমে জেল হাজতে রয়েছে। প্রয়োজনে আবার রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে বাকীদের আটক করা হবে।তবে বাকী আসামীদের গ্রেফতারের প্রক্রিয়া চলমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...