আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

ফাহাদের ভাই ফায়াজ ঢাকা কলেজ ছেড়ে কুষ্টিয়া কলেজে

গন উত্তরণ ডেক্স : নির্মম হত্যাকান্ডের শিকার বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদের ছোট ভাই আবরার ফায়াজ এখন কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের ছাত্র। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে এই কলেজের বিজ্ঞান বিভাগে তার ভর্তি সম্পন্ন হয়। আবরার ফায়াজ অসুস্থ থাকায় তিনি কলেজে যেতে পারেননি। তার বাবা ভর্তিসংক্রান্ত প্রক্রিয়া শেষ করেন। তার ছাড়পত্র সহ আনুষাঙ্গিক কাগজপত্র গ্রহণ করে কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ তার ভর্তির প্রক্রিয়া শেষ করেন।

কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক কাজী মনজুর কাদির বলেন, আবরার ফায়াজের ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। আমরা তার পড়াশোনাসংক্রান্ত বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতা করব।

এর আগে গত মঙ্গলবার ঢাকা কলেজের উচ্চমাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষে অধ্যয়নরত আবরার ফায়াজ ছাড়পত্র (টিসি) নেন। এর পর কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে ভর্তি হতে ঢাকা বোর্ড তাকে অনুমতিও দেয়। আবরার ফাহাদের মৃত্যুর পর ঢাকায় আর পড়ালেখা করবেন না বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন ফায়াজ। কেন এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেই প্রশ্নের জবাবে গণমাধ্যমকর্মীদের ফায়াজ বলেছিলেন, ভাইকে হারিয়ে আমি একা হয়ে পড়েছি। ঢাকায় থাকার এখন কোনো মানে হয় না। ‘ফাহাদ ভাই আমার অভিভাবক ছিলেন। আমাদের দুই ভাইয়ের মধ্যে যে সম্পর্কটি ছিল তা এক কথায় প্রকাশ করা যাবে না। ওর সঙ্গে আমার সম্পর্ক এমন ছিল যে মা-বাবার কথা তেমন মনেই হতো না। আর সেই ভাই এখন নেই, ঢাকায় আমি কার কাছে যাব? কার জন্য তা হলে ঢাকায় পড়ে থাকব। বড় ভাইকে হারিয়ে মা-বাবা এমনিতেই দিশেহারা; তাই আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি ঢাকা আর না, কুষ্টিয়ায় পড়াশোনা করব।

 সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে গত ৬ অক্টোবর বুয়েটের তড়িৎকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ও আবরার ফাহাদকে শেরেবাংলা হলের ২০১ নম্বর কক্ষে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

হত্যার ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে রাজধানীর চকবাজার থানায় একটি মামলা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...