আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২১ ইং

৯৯৯ এ ফোন করে আড়াই মাস পর মেয়েকে ফিরিয়ে পেল পরিবার

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:  গাইবান্ধার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা সরোয়ার এর সহযোগিতা এবং জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ ফোন করে দীর্ঘ আড়াই মাস পর মানসিক ভারসাম্যহীন মেয়েকে ফিরে পেল তার পরিবার।
জানা যায় গত ৯/৩/২০২০ তারিখে নরসিংদী জেলার মনোহরদি থানার পাটুরি গ্রামের মুখেন চন্দ্র বর্মনের মেয়ে বাড়ি থেকে হারিয়ে যায় এরপর সে গাইবান্ধা জেলায় সদর উপজেলার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের বালুয়া বাজারে আসে এরপর স্থানীয় একজন দর্জি ব্যাবসায়ী উজ্জল চক্রবর্তি তাকে তার বাড়িতে আশ্রয় দেয়।
 কিন্তু এসময় তার শারীরিক অবস্থা খারাপ ছিলো তাই তখন তাকে তার ঠিকানা জনতে চাইলে ঝর্না কোন উত্তর  দিতে পারেনি এরপর হঠাৎ এক দিন পর সে তার ঠিকানা বলতে পারে ঠিকানা শোনার পর উজ্জল রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের উদ্যোক্তা সারোয়ার এর কাছে যায় সারোয়ার নরসিংদি জেলার সমমত ইউপি ডিজিটাল সেন্টারে মেয়েটির দেওয়া তথ্য পাঠালে তার পরিবারের সন্ধান পাওয়া যায়।
এরপর ঝর্নাকে আইনিভাবে ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য ৯৯৯ এ ফোন করেন ঐ উদ্যোক্তা। পরে ৯৯৯ গাইবান্ধা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ এর সঙ্গে যোগাযোগ করে দিলে ওসি  বিষটি সম্পর্কে অবগত হন এবং মনোহরদি থানার ওসির সাথে যোগাযোগ করেন। ঝর্নার পরিবারের সাথে কথা বলে পরে উজ্জল এবং উদ্যেক্তা সরোয়ার ঝর্নার পরিবারের কাছে ঝর্নাকে তুলে দেন। এসময় দির্ঘদিন পর মেয়কে দেখতে পেয়ে তার বাবা আবেগে আপ্লুত হয়ে ভেঙ্গে পরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...