আজ ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩১শে জানুয়ারি, ২০২৩ ইং

জেলা কারাগার উড়িয়ে দেয়ার হুমকী, মুল ফটকে পুলিশি পাহাড়া

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাট কারাগারের জেল সুপার ও জেলা প্রশাসককে একটি উড়ো চিঠি পাঠানো হয়েছে। সেই চিঠিতে এবং মোবাইলে বোমা মেরে কারাগার উড়িয়ে দিয়ে সাথী ভাইদের ছিনিয়ে নেওয়ার হুমকি দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় নিরাপত্তা জোরদারের পাশাপাশি থানায় জিডি করেছেন কারা কর্তৃপক্ষ।

সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কারাগারে নিরাপত্তা জোরদারের জন্য সদর থানায় সাধারণ ডায়েরির (জিডি) বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক মো. আবু জাফর।

এ ঘটনায় আজ সোমবার দুপুর থেকে কারাগারের মূল ফটকে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। তল্লাশি চালানো হচ্ছে প্রতিটি রিক্সা, ভ্যানসহ সকল প্রকার যানবাহনে।

কারাগারের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, গত সপ্তাহে লালমনিরহাট কারাগারের জেল সুপার ও জেলা প্রশাসককে একটি উড়ো চিঠি পাঠানো হয়। সেই চিঠিতে কারাগার উড়িয়ে দিয়ে সাথী ভাইদের ছিনিয়ে নেওয়ার হুমকি দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

চিঠিটি আমলে নিয়ে কারাগারের নিরাপত্তা জোরদারের পাশাপাশি ঘটনাটির তদন্ত শুরু করে পুলিশ প্রশাসন। এরই মধ্যে শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে জেল সুপার কিশোর কুমার নাগকে একটি টেলিটক নম্বর থেকে ফোন করে একইভাবে হুমকি দেওয়া হয়।

বলা হয় যেকোনো মূল্যে জেলখানা থেকে তাদের সাথী ভাইদের মুক্ত করা হবে। উড়িয়ে দেওয়া হবে কারাগার।

মোবাইলে এরকম কথা শোনার পরপরই কারাগারের রাস্তাসহ আশপাশের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। হঠাৎ নিরাপত্তা জোরদার হলে বিষয়টি প্রকাশ পায়। মোবাইল ফোন ও চিঠিতে হুমকি দেওয়ার ঘটনায় রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাতে
লালমনিরহাট সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন কারাগার কর্তৃপক্ষ।

লালমনিরহাট সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহা আলম  বলেন, গোপনীয়তার স্বার্থে এ বিষয়ে এখন তেমন কিছু বলা যাচ্ছে না। সিনিয়র অফিসারদের সঙ্গে কথা বলে জানানো হবে।

লালমনিরহাট কারাগারের জেল সুপার কিশোর কুমার নাগ  বলেন, নিরাপত্তার অংশ হিসেবে আমাদের করতে হয়েছে। সারাদেশে জেলখানার নিরাপত্তা সব সময় থাকে। নিরাপত্তার বিষয়গুলো ডিসকাস করা হয় না।

তিনি আরো বলেন, ১৯০ জনের ধারণক্ষমতার এ কারাগারে এখন পর্যন্ত ৪৬৬ জন আসামি ও কয়েদি রয়েছেন। যার মধ্যে নাশকতার বিভিন্ন মামলায় জঙ্গি সংগঠনের সক্রিয় সদস্য ২০ জন বন্দি রয়েছে এ কারাগারে।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর  বলেন, গত সপ্তাহে আমার কাছে ও জেল সুপারের কাছে একটি করে হুমকি দিয়ে চিঠি আসে। এরপর জেল সুপারকে মোবাইলে হুমকি দেওয়া হলে জিডি করা হয়েছে। পুরো বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। কারাগারে নিরাপত্তাও জোরদার করা হয়েছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...