আজ ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১শে জুন, ২০২১ ইং

এখনো অচেতন রয়েছেন নাসিম, রয়েছেন ভেন্টিলেশন সাপোর্টে

ডেক্স নিউজ : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিমের অবস্থা সংকটাপন্ন। তিনি এখনো অচেতন অবস্থায় হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রয়েছেন বলে জানিয়েছে চিকিৎসকরা।

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বধীন ১৪ দলের মুখপাত্র নাসিম গত ছয় দিন ধরে রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। শুক্রবার তার ‘ব্রেইন স্ট্রোক’ হওয়ার পর মস্তিষ্কে সফল অস্ত্রোপচার শেষে ভেন্টিলেশন সাপোর্টে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তাকে আরও ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ করা হবে। এ ছাড়া তার চিকিৎসার জন্য গঠন করা হয়েছে মেডিকেল বোর্ড।

হাসপাতালের পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আল ইমরান চৌধুরী জানান, সফল অস্ত্রোপচারের পর নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে মোহাম্মদ নাসিমকে। উনার অবস্থা এখনও আসলে কিছু বলা যাচ্ছে না। গত ২৪ ঘণ্টায় উনার অবস্থা খারাপও হয়নি আবার ভালো হয়েছে এটিও বলা যাবে না।

এদিকে মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা পর্যবেক্ষণ শেষে জানিয়েছেন, নাসিমের অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে। কিন্তু তার অবস্থা সংকটাপন্ন।

মোহাম্মদ নাসিমের ছেলে ও সাবেক সংসদ সদস্য তানভীর শাকিল জয় গণমাধ্যমকে জানান, তার বাবা করোনা থেকে খুব দ্রুত সেরে ওঠেন। কিন্তু শুক্রবার সকালে তার বড় আকারের একটি স্ট্রোক হয়। সঙ্গে সঙ্গে অপারেশন করে জমাট বাঁধা রক্তের অধিকাংশই অপসারণ করা হয়। তার পরও তিনি এখন পর্যন্ত অত্যন্ত সংকটাপন্ন অবস্থায় আছেন। বেশি রক্তক্ষরণ হওয়ায় মাথার ভেতরে এখনও কিছু রক্ত জমাট বেঁধে আছে।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে শনিবার মোহাম্মদ নাসিমের চিকিৎসায় ৫ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। এরই মধ্যে সেই বোর্ড মিটিং করে তাকে ৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তিনি ভেন্টিলেটরে অচেতন অবস্থায় রয়েছেন।

এর আগে শনিবার মেডিকেল বোর্ডের সদস্য দেশের প্রখ্যাত নিউরোলজিস্ট অধ্যাপক ডা. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ শনিবার বলেন, মোহাম্মদ নাসিম বহুদিন ধরেই ডায়াবেটিস রোগে ভুগছেন। ব্লাড প্রেশারও আছে। এরই মধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর পর আবার ব্রেন স্ট্রোক করেছেন। সব মিলে তার অবস্থা সংকটাপন্নই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...