আজ ১১ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জুলাই, ২০২১ ইং

করোনা মুক্ত হলেন কৃষকলীগের সাধারন সম্পাদক এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি

পলাশবাড়ি প্রতিনিধি: সারাদেশের দলীয় নেতাকর্মীদের দোয়ায় অবশেষে করোনা মুক্ত হলেন এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি । দেশ ও জনগণের মঙ্গলের জন্য সর্বদা সোচ্চার ও অঙ্গিকার ভুক্ত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেখানো পথে এগিয়ে যাওয়া গাইবান্ধা-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি-এমপি। তার পরিচালনায় শুধু পলাশবাড়ী বা গাইবান্ধায় নয় সারাদেশ ও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কৃষকলীগের নেতাকর্মীরা অতিত সময়ে চাইতে অনেক বেশী রাজনৈতিক ভাবে উজ্জীবিত ও সোচ্চার সাংগঠনিক ভাবে। একটি রাজনৈতিক সংগঠন হিসাবে অধিক গতিশীল সংগঠন কৃষক ও কৃষির সফলতায় ও সম্ভবণায় সর্বদা মাঠে কৃষকের সাথে সরকারের পাশাপাশি কৃষককের পাশের রয়েছে বাংলাদেশ কৃষকলীগের নেতাকর্মীরা।

এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি এ সকল ব্যস্ততার মাঝে চলতে চলতে একটানা পরিবহন যাত্রায় পর মানসিক চাঞ্চলতা থাকলেও তবে শাররিক ভাবে হাফিয়ে উঠেছেন এবং অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। এরমধ্যে তিনি করোনায় আক্রান্ত হন। চিকিৎসাধীন থাকার পর করোনা পরীক্ষায় তার নেগিটিভ এসেছে। এ কারণে তিনি যে এখন আর করোনা আক্রান্ত নন তা নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে। বর্তমানে তিনি স্বাভাবিক সুস্থ্য থাকলেও চিকিৎসকরে পরামর্শে নিয়ে চলাচল করছেন । মোবাইলে যোগাযোগ সীমিত করেছেন । অপ্রয়োজনীয় কাজ ও কথা বার্তা হতে নিজেকে সংযত করে রাখা চেষ্টা করা পাশাপাশি সর্বপরি তার যাবতীয় কর্মকান্ডের পর একটু শাররিক বিশ্রাম করার প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক। তাহার বিদ্যুগতি সম্পন্ন মানুসিকতা ও দায়িত্ব শীলতার প্রতি হতভম্ব চিকিৎসকগণ। প্রিয় নেত্রীর সুস্থ্য ও দীর্ঘ আয়ূ কামনা করেছেন সারাদেশের কৃষকলীগের নেকাকর্মীরা ও পলাশবাড়ী সাদুল্যাপুরের সর্বস্তরে মানুষ। এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি সুস্থ্য হওয়ার খবরে সারাদেশে নেতাকর্মীদের ন্যায় পলাশবাড়ী সাদুল্লাপুরের মানুষ মহান আল্লাহ্ দরবারে শুকরিয়া কামনা করেন।

বাংলাদেশ কৃষকলীগের সভাপতি সমীর চন্দ্রের নেতৃত্বে ও স্মৃতি এমপির পরিচালনায় কেন্দ্রীয় কমিটির সার্বিক সহযোগীতায় কৃষকলীগের কাংখিত সাংগঠনিক শক্তি ফিরিয়ে আনার লক্ষে জোড়ালো ভাবে গোটা দেশ চষিয়ে বেড়াচ্ছেন। দেশের আনাচে কানাচে কৃষকলীগের নেতাকর্মীরা আজ অনেক অনেক ভাবে উজ্জীবিত। কৃষকলীগের নেতাকর্মীরা সরকারের চলমান উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়নে তারাও ভূমিকা পালন করে চলছেন । দেশ জুড়ে তারা জনসচেতনতা বৃদ্ধি কল্পে বৃক্ষ রোপন, কৃষি সমাবেশ,রক্তদান, কৃষকদের আনন্দ র‌্যালী, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও জাতীয় নেতৃবৃন্দের স্মরণে শোক সভা পরিচালনা করেছেন সফল ভাবে। এসকল কর্মসূচী পালনের পাশাপাশি সাংগঠনিক অন্যান্য কর্মসূচীর মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রমে নাগরিকদের প্রাপ্ত সেবা কর্মসূচী বিষয়ে জনগণের সামনে তুলে ধরে চলছেন। কৃষির উন্নয়নে সরকারের বর্তমান পদক্ষেপ গুলো তুলে ধরছেন । এতে করে কৃষক কৃষানী প্রানের বন্ধন হিসাবে যুগের পর যুগ আলোকিত হচ্ছে বাংলাদেশ কৃষকলীগ । কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় কৃষকলীগের একাধিক নেতাকর্মীরা বলেন, বিগত সময়ে তৃণমুলের কৃষকলীগের নেতাকর্মীদের মুল্যায়ণ করা হতো না বর্তমান সময়ে শুধু জেলা বা বিভাগ গুলো নয় তৃণমুলের ওয়ার্ড ও ইউনিয়নের কমিটি গুলোর নেতাকর্মীদের মূল্যায়ণ করা হয়। তাদের বিষয়ে খোজ খবর রাখেন সমীর চন্দ্র ও এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপির নেতৃত্বে বর্তমান কেন্দ্রীয় কমিটি নেতৃবৃন্দ ।

যে পারবে তাকেই সেখানে দিতে হবে সে মানুষ ছেলে না মেয়ে তা দেখলে হবে না শান্তির জন্য নারীর অর্ধেক অবদান তা স্বীকৃতি যেমন ইসলাম ধর্মের দিকে দেখে তেমনি রাষ্ট্রীয় ভাবে দেওয়া হচ্ছে। বাংলার কৃষক কৃষানির উন্নয়নের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতি পথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ । এর ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ কৃষকলীগ নিজেদের রাজনৈতিক নক্ষত্র হিসাবে দেশ ও বিশ্বের কাছে পরিচিতি বৃদ্ধি পেয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...